তারকাদের যতো কুসংস্কার!

সুরমা টাইমস ডেস্ক:: কুসংস্কার বা অন্ধবিশ্বাস মানা না মানার ক্ষেত্রে বয়স কোনো বিষয় নয়। অন্তত বলিউড শাহেনশাহ অমিতাভ বচ্চনের ক্ষেত্রে তো নয়ই।
বিশেষত ক্রিকেট বিষয়ে তার কট্টর কুসংস্কার রয়েছে। অন্ধ-ক্রিকেটভক্ত অমিতাভ কোনো লাইভ ম্যাচ দেখেন না। বিগ বি’র বিশ্বাস, তা করলে তার প্রিয় দলের উইকেট পড়তে থাকবে যা তাদের হারকে নিশ্চিত করবে। এছাড়া তিনি হাতের আঙুলে যে নীলকান্তমনির আংটিটি পড়েন তাও অন্ধ বিশ্বাস প্রসূত। চলচ্চিত্র ব্যবসায়ে নেমে তিনি যখন চরম ভাগ্য বিপর্যয়ের মুখে তখন এই নীলকান্ত মনি তাকে বিপদমুক্ত করেছে বলে বিশ্বাস রাখেন। অমিতাভ ছাড়াও হলিউড-বলিউডের বেশ কয়েকজন তারকার অন্ধবিশ্বাস বা কুসংস্কার সম্পর্কে আসুন জেনে নেওয়া যাক-

রণবীরের কালো সুতা:-
ছোটবলোয় একবার কঠিন অসুখ হয়েছিল রণবীর সিংয়ের। ছেলের রোগমুক্তির জন্য তার পায়ে মন্ত্রপড়া কালো একটি সুতো বেঁধে দিয়েছিলেন মা। রোগমুক্তির পর থেকে সেই কালো সুতা আর পা-ছাড়া করেননি হালের বলিউড কাঁপানো সুপারস্টার রণবীর।

সালমান খানের নীলপাথরওয়ালা ব্রেসলেট:-
বৃদ্ধের কাতারে থেকেও এখনও বিয়ে না করা ‘লাভার বয়’ সালমান খানের হাতে নীল পাথরওয়ালা ব্রেসলেট তো অনেকেরই চোখে পড়েছে।
এই বস্তুটি তার বাবা বিখ্যাত কাহিনীকার সেলিম খান তাকে তোহফা হিসেবে দিয়েছিলেন। তার ডান পায়ে এখনো সেই সুতো বাঁধা রয়েছে এবং কোনো অবস্থাতেই তিনি এটা খুলেন না।

প্লেন নিয়ে জেনিফার অ্যানিস্টন:-
হলিউড রূপসী জ্যানিফার অ্যানিস্টনের উড়োজাহাজে ওঠা নিয়ে রয়েছে অদ্ভুত বাতিক। তিনি যে প্লেনে উঠবেন তার গায়ে বাইরে থেকে টোকা দেন কয়েকটা। এছাড়া ডান পা আগে দিয়ে ওঠেন- এটাও লোকজনের নজর এড়ায়নি। এটাকেও অনেকে তার কুসংস্কার বলে মনে করেন।

ক্যাটরিনার আজমির যাত্রা:-
গ্ল্যামার গার্ল ক্যাটরিনা কাইফ আজমির দরগাহে অগাধ বিশ্বাস রাখেন। তার কোনো ছবি রিলিজের আগে তিনি খাজা মইনুদ্দিন চিশতির মাজারে যান দোওয়ার জন্য।

শাহরুখ খানের ৫৫৫:-
বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খানের যে কোনো গাড়ির নম্বর হতে হবে ‘৫৫৫’ যুক্ত। শাহরুখের প্রোডাকশন হাউজ রেড চিলিস এন্টারটেইনমেন্টের সিইও ববি চাওলা এ প্রসঙ্গে বলেন, এই ব্যাপারটার মধ্যে কোনো রহস্য নেই। শাহরুখ এই নম্বরটির ভক্ত, ব্যস এটাই হলো কথা। এই নম্বর তার দখলে আছে দীর্ঘকাল। শাহরুখের ঘনিষ্ঠ এক সূত্র অবশ্য দিয়েছে আরও মজারু তথ্য। সেটা হচ্ছে, শাহরুখ পরিবারের সবাই এবং তার কর্মচারীরা তার এই ৫৫৫ নম্বরকে শ্রদ্ধা করেন। এ কারণে তাদের প্রত্যেকের মোবাইল নম্বরে ৫৫৫ রাখা হয়েছে। তার এক কর্মচারীর ভাষ্যমতে- আমাদের সবার মোবাইল নম্বরেই ৫৫৫ আছে। সবার নম্বরে পাথ্যক্য একটাই- শেষের দুটি ডিজিট আলাদা।

দিপিকার গণেশ:-
‘পদ্মাবতী’ দিপিকা পাড়ুকোন ভগবান গণেশের ভক্ত। এই বিশ্বাসের কারণে নিজের কোনা ছবি মুক্তির আগে মুম্বাইয়ের সিদ্ধি বিনায়কের মন্দিরে যান প্রার্থণা করতে। সিদ্ধি বিনায়ক জানাকে তিনি তার ‘সৌভাগ্যের কবচ’ বলে মানেন।

অক্ষয়ের বিদেশে দৌড়:-
বলিউডের অন্যতম ধনী তারকা অক্ষয় কুমার নিজের ছবি মুক্তির আগে বিদেশ চলে যান। বছরে তার বেশ কয়েকটি সিনেমা বক্স অফিসে বাজিমাত করে। তিনি বিশ্বাস করেন তার দেশে থাকা অবস্থায় নিজের ছবি রিলিজ হলে তা দর্শক টানতে ব্যর্থ হবে।

অড্রে হেপবার্নের খরগোশ:-
রোমান হলিডে’র বিশ্ব মাতানো নায়িকা অড্রে হেপবার্ন যক্ষের ধনের মতো আগলে রাখতেন পাথরে তৈরি ছোট্ট একটি খরগোশ মূর্তি। ১৯৯৩ সালে ৬৪ বছর বয়সে মারা যাওয়া এই বেলজিয়ান অভিনেত্রী মূর্তিটিকে নিজের জন্য পয়মন্ত মনে করতেন।

শিল্পা শেঠি:-
বলিউডের কুসংস্কারপ্রবণ তারকাকূল শিরোমনি বলা যায় শিল্পা শেঠিকে। ইউপিএল টিম রাজস্থান রয়েলসের খেলা চলাকালীন তিনি হাতে দুটি ঘড়ি পরতেন। নিজের টিমের খেলা চলাকালে তিনি আর কি কি করতেন সে সম্পর্কে তিনি নিজে বলেন, যখনি আমাদের দল ব্যাট করতে আমি দুই পা আলাদা করে বসতাম অর্থাৎ পা আড়াআড়ি রেখে বসতাম না। তবে যখনি বিপক্ষের টিম ব্যাটিং করতো তখন আমি ক্রস লেগে (আড়াআড়ি পা) বসতাম। টিমের জয় নিয়ে খ্যাপাটে স্বভাবের শিল্পা বিশেষ ধরনের ‘লাকি ব্রেসলেট’ও পরেন।

অ্যাক্সল রোজ:-
হলিউডের বিখ্যাত চিত্র প্রযোজক ও গায়ক অ্যাক্সল রোজ যেসব শহরের নাম ‘এম’ আদ্যাক্ষর দিয়ে শুরু হয়েছে সেসব শহরে কোনো অনুষ্ঠানে পারফর্ম করেন না।

Sharing is caring!

Loading...
Open