জনপ্রিয় চিত্রনায়ক নায়ক সালমান হত্যা নিয়ে যা বললো পিবিআই ,

সুরমা টাইমস ডেস্ক :: জনপ্রিয় চিত্রনায়ক সালমান শাহ হত্যা মামলায় তদন্তের ‘অগ্রগতি’ প্রতিবেদন আদালতে দাখিল হলেও তাতে নতুন কিছু পাওয়া যায়নি।

ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম মাহমুদা আক্তারের আদালতে সোমবার প্রতিবেদন দাখিল করা হয়। ওই প্রতিবেদনে তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) পরিদর্শক সিরাজুল ইসলাম বাবুল জানিয়েছেন, তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।

‘বাংলা সিনেমা’ যার হাত ধরে বদলে গিয়েছিল, তিনি সালমান শাহ। লাইফস্টাইল থেকে অভিনয় সবকিছু দিয়েই তিনি ‘ঢাকার সিনেমায়’ নতুন অধ্যায়ের সূচনা করেছিলেন। একের পর এক সুপারহিট সিনেমা উপহার দিয়ে যখন জনপ্রিয়তার শীর্ষে তখন হঠাৎ করেই ১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর এই নক্ষত্রের পতন ঘটে। রাজধানীর ইস্কাটনের নিজ বাসা থেকে ‘বাংলা সিনেমার’ স্টাইল আইকন সালমান শাহর (চৌধুরী মো. ইমন) লাশ উদ্ধার করা হয়।

এর পরপরই অপমৃত্যুর মামলা করেন তার বাবা কমরউদ্দিন; যা পরে রূপান্তরিত হয় হত্যা মামলায়। চূড়ান্ত প্রতিবেদনে আসে আত্মহত্যা করেছেন সালমান শাহ। এ নিয়ে রিভিশন দায়ের করেন সালমানের পরিবার। বাবার মৃত্যুর পর পর সালমানের মা নীলা চৌধুরী বাদী হিসেবে আসেন। তিনি আগের তদন্ত প্রতিবেদনের বিরুদ্ধে নারাজি আবেদন করেন। নীলা চৌধুরী তার পুত্রবধূ সামিরা হক, চলচ্চিত্র প্রযোজক ও ব্যবসায়ী আজিজ মোহাম্মাদ ভাইসহ ১১ জনকে তার ছেলের মৃত্যুর জন্য দায়ী করেন।

এরপর দীর্ঘদিন বিষয়টি ঝুলে থাকার পর গত বছরের ডিসেম্বরে আদালত পিবিআইকে পুনঃতদন্তের নির্দেশ দেন। এর আগে র‌্যাবকে দিয়ে অধিকতর তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হলেও দায়রা জজ আদালতে তা আটকে যায়।

সোমবার তদন্তের অগ্রগতি প্রতিবেদনে সিরাজুল বলেন, সালমান শাহের মা নিলুফা চৌধুরী ওরফে নীলা চৌধুরীকে তিনি জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন। সাক্ষী হিসেবে হুমায়ুন কবির, আ. সালাম, দেলোয়ার হোসেন শিকদার, আ. খালেক হাওলাদার, বাদল খন্দকার (চলচ্চিত্র পরিচালক), শাহ আলম কিরণ (চলচ্চিত্র পরিচালক), মুশফিকুর রহমান গুলজার (চলচ্চিত্র পরিচালক), এসএম আলোক সিকদার ও হারুন আর রশিদকেও জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন তিনি। সাক্ষীদের ঠিকানা নির্ণয়ের জন্য কতিপয় সাক্ষীর স্থায়ী ঠিকানায় অনুসন্ধান স্লিপ ইস্যু করা হয়েছে। রুবির ভিডিও ফুটেজ পর্যালোচনা করা হয়েছে। মামলাটির তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।

এরপর সালমান শাহর মৃত্যুতে অপমৃত্যু মামলার পুনঃতদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য করেন আদালত। এতে চিত্রনায়ক সালমানের মৃত্যুরহস্য উদঘাটনের জন্য আরও সময় পেল মামলার তদন্ত সংস্থা পিবিআই।

এর আগে গত ২৫ সেপ্টেম্বর প্রয়াত চিত্রনায়ক সালমান শাহর মৃত্যুর ঘটনায় করা মামলা পুনঃতদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য ছিল। ওই দিন পিবিআই প্রতিবেদন দাখিল না করায় ঢাকা মহানগর হাকিম মাহমুদা আক্তার প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ২০ নভেম্বর দিন ধার্য করেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open