লন্ডনের হামলাকারীদের জানাজা না পড়ানোর আহব্বান ।।।

সুরমা টাইমস ডেস্ক ; পড়াতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন ১৩০ জন ইমাম ও ধর্মীয় নেতাদের একটি দল। হামলাকারীদের কুকর্মকারী হিসেবে উল্লেখ করে তাদের জানাজায় শরিক না হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা। অন্য ইমামদের প্রতিও তারা একই আহ্বান জানিয়েছেন।

ইস্ট লন্ডন মসজিদের বক্তাদের একটি প্যানেল জঙ্গিবাদ মোকাবেলায় কাজ করার ঘোষণা দিয়েছে। ওই মসজিদ ও লন্ডন মুসলিম সেন্টারের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান বলেন, ‘যারা আমাদের বিভাজিত করতে চায় তাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে আরও একবার আমরা একত্রিত হলাম। শনিবার রাতে লন্ডনে যেভাবে নির্দোষ লোকজনকে হত্যা করা হয়েছে তার মধ্য দিয়ে আমাদের বিভাজিত করা যাবে না।’

হাবিবুর আরও বলেন, ‘যারা জঙ্গিবাদী কর্মকাণ্ড চালায় তাদেরকে আমি একটি স্পষ্ট বার্তা দিতে চাই: তোমরা ইসলাম এবং আমাদের মহানবী (স.) এর মূল শিক্ষার বিরুদ্ধে। পথভ্রষ্টতা তোমাদেরকে ধ্বংসের পথে নিয়ে যাবে এবং আল্লাহর ইচ্ছায় তোমরা তোমাদের মন্দ লক্ষ্য অর্জনে ব্যর্থ হবে।’

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ইন্ডিপেনডেন্টের প্রতিবেদনে বলা হয়, ইমাম ও ধর্মীয় নেতাদের ওই দলটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি বিবৃতি প্রকাশ করেছেন। বিবৃতিতে বলা হয়, ‘ইসলামে বিশুদ্ধ বলে বিবেচিত এমন সব নৈতিক মূলনীতির আলোকে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি কুকর্মকারীদের জানাজায় অংশ নেব না। এ ধরনের জানাজায় অংশ নেওয়া থেকে বিরত থাকতে আমরা অন্য ইমাম ও ধর্মীয় কর্তৃপক্ষের প্রতিও আহ্বান জানাচ্ছি। এর কারণ এ ধরনের অসুরক্ষিত কর্মকাণ্ড একেবারেই ইসলামের সুউচ্চ শিক্ষার পরিপন্থী।’

লন্ডনব্রিজে হামলাকারী তৃতীয় ব্যক্তির নাম পরিচয় প্রকাশ করেছে পুলিশ। তৃতীয় হামলাকারীর নাম ইউসেফ জাগবা। সে মরোক্কান ইতালিয়ান নাগরিক। এর আগে ২৭ বছর বয়সী পাকিস্তানি অরিজিন খুরাম শাজাদ ভাট এবং ৩০ বছর বয়সী রাশিদ রেডোয়ানের নাম প্রকাশ করে পুলিশ। তারা দুজনেই ইস্ট লন্ডনের বার্কিংয়ের বাসিন্দা।

এই ৩ হামলাকারী গত ৩ জুন শনিবার সেন্ট্রাল লন্ডনের লন্ডন ব্রিজে হামলা চালিয়ে ৭জনকে হত্যা করে। হামলায় ৪৮ জন আহত হন। এনএইচএস জানিয়েছে, আহতদের মধ্যে ৩৬ জন এখনো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। এরমধ্যে ১৮ জনের অবস্থা বেশ গুরুতর। হামলাকারীর লন্ডন ব্রিজ এবং পাশের বারা মার্কেটে একটি হায়ার করা ভেন এবং ছুরি দিয়ে সাধারণ পথচারীদের আঘাত করে। হামলা শুরুর প্রায় ৮ মিনিটের ভেতরে সশস্ত্র পুলিশ আসে। পরবর্তীতে পুলিশের গুলিতে হামলাকারী ৩জন নিহত হয়।

Sharing is caring!

Loading...
Open