মৃত্যুর আগে প্রেমিকের সঙ্গে শেষ কথা হয়েছিলো প্রত্যুষার

399ডেস্ক রিপোর্ট:বালিকা বধূ’খ্যাত টিভি অভিনেত্রী প্রত্যুষা ব্যানার্জির মৃত্যুকে ঘিরে বেরিয়ে আসছে একের পর এক সত্যতা। প্রত্যুষার পরিবারের দাবি, এ অভিনেত্রীর মৃত্যুর জন্য দায়ী প্রেমিক রাহুল রাজ সিং। এ বিষয়ে পুলিশের তদন্ত এখনও চলছে কিন্তু আদালত থেকে আগাম জামিন পেয়েছেন রাহুল।

অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী নিলেশ পেশকার এক বিবৃতিতে আদালতকে জানিয়েছেন, মা এমএলএ, শ্রীলঙ্কাতে ক্যাসিনো আছে, ১৫০ একর জমি রয়েছে। এ সব কিছুর প্রলোভন দেখিয়ে রাহুল মেয়েদের পটানোর চেষ্টা করতো। সেই ফাঁদেই পড়েছিল প্রত্যুষা। এছাড়া নিলেশ আদালতে একটি অডিও ক্লিপও পেশ করেছেন। ওই অডিও ক্লিপটিতে রাহুল-প্রত্যুষার মধ্যে মোবাইলে শেষ কি কথা হয়েছিল তা রয়েছে।

রাহুল-প্রত্যুষার শেষ কথা হয় ১ এপ্রিল বেলা ৩টা ৪৩ মিনিটে (প্রত্যুষার মৃত্যুর কিছুক্ষণ আগে)। তাদের কথপোকথন হয়েছিল ৩ মিনিট ২১ সেকেন্ড। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো এমনটাই জানিয়েছে।

শেষ ফোনকলে ২৪ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী রাহুলকে বার বার ‘চিটার’ অর্থ‍াৎ ‘ধোঁকাবাজ’ বলেছিলেন। তিনি বলেন, ‘আমাকে চরিত্রহীনা বলা হচ্ছে। আমাকে খুন করার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। আমার বাবা-মাকে খুনের হুমকি দেওয়া হচ্ছে। আমার জীবনে কী রইলো?’ এই কথার উত্তরে রাহুল বলেন যে এই সবই তুচ্ছ বিষয়।

এর উত্তরে প্রত্যুষা বলেন, ‘তুমি এগুলোকে তুচ্ছ কী করে বলতে পারো? মিস্টার রাহুল, নিজের ইগোকে একপাশে রাখো।’ তিনি রাহুলকে আরও বলেন, ‘তুমি চিটার। তুমি আমাকে ঠকিয়েছো। আমার বাবা-মায়ের থেকে আমাকে আলাদা করে দিয়েছো। এবার দেখো আমি কী করি’। এরপর রাহুল তাকে শান্ত হতে বলেন। তিনি বলেন, আমি রাস্তায় আছি এবং এই বিষয়ে বাড়ি গিয়ে কথা হবে।

গত ১ এপ্রিল নিজের বাসার সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আত্মহত্যা করেন টিভি অভিনেত্রী প্রত্যুষা ব্যানার্জি। পরবর্তীতে এটি খুন নাকি আত্মহত্যা এমন প্রশ্ন উঠলে পুলিশ জানায় তিনি আত্মহত্যা করেছেন। তবে কী কারণে তিনি আত্মহত্যা করেছেন তা নিয়ে এখন তদন্ত চলছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open