প্রচন্ড তাপদাহে পুড়ছে সিলেট,আগামীকাল হতে পারে বৃষ্টি!

নিজস্ব প্রতিবেদক:: প্রচণ্ড খরতাপে পুড়ছে সিলেট। জ্যৈষ্ঠের বিদায় লগ্নে গরমে সিলেটের জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে উঠেছে। বুধবার সিলেটের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এবছরের মধ্যে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ তাপমাত্রা বলে জানিয়েছে সিলেট আবহাওয়া অফিস। এদিকে, তীব্র গরমে সিলেটের অফিস, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, হাট, মাঠ সর্বত্র মানুষের মধ্যে অস্বস্তি দেখা দিয়েছে। তবে আজ তাপমাত্রা কিছুটা হ্রাস এবং আগামীকাল শুক্রবার বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

সিলেট আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা যায়, গতকাল বুধবার সর্বোচ্চ তামপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা এবছরের মধ্যে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ তাপমাত্রা। এর আগে গত এপ্রিলে তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ৩৬ দশমিক ৮ডিগ্রি সেলসিয়াস। তীব্র রোদের সাথে বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ কমে যাওয়ায় গরম আরো বেশি অনুভূত হয়েছে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট বিভাগ। আগের দিন মঙ্গলবারও তীব্র গরমে অস্বস্তিতে ছিলেন সিলেটের মানুষ। মঙ্গলবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আজ দুপুর ২টায় সিলেটের তাপমাত্রা ৩৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি অবস্থান করছে।

তীব্র রোদ থেকে রক্ষা পেতে দুপুরের দিকে রাস্তায় লোকজনের চলাচল অনেকটা সীমিত হয়ে যায়। গরমে কর্মক্লান্ত নিম্ন আয়ের মানুষ গাছের ছায়ায় অথবা বাসা-বাড়ির আড়ালে আশ্রয় নেন। বেড়ে যায় পানীয় জলের চাহিদা। গরম প্রশমিত করতে অনেকে ঠান্ডা পানীয়-জলের দোকানে ভিড় করেন।

এদিকে, আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, আজ বৃহস্পতিবারও গরম থাকবে। তবে গতকালের তুলনায় তাপমাত্রা হ্রাস পেতে পারে। সিলেট আবহাওয়া অফিসের জ্যেষ্ঠ আবহাওয়াবিদ সাঈদ আহমদ চৌধুরী জানান, সিলেট ও তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলের ওপর দিয়ে তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ কম থাকায় গরম বেশি অনুভূত হচ্ছে। তবে আজ গতকালের তুলনায় উষ্ণতা কিছুটা হ্রাস পাবে এবং আগামীকাল শুক্রবার বৃষ্টি হতে পারে।

Sharing is caring!

Loading...
Open