কয়লা আমদানীকারক গ্রুপ সভাপতির বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশে সংবাদ সম্মেলন


তাহিরপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ তাহিরপুর কয়লা আমদানীকারক গ্রুপ সভাপতি আলকাছ উদ্দিন খন্দকারের বিরুদ্ধে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করায় উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের বড়ছড়া জয়বাংলা বাজার বণিক সমিতির উদ্যোগে সংবাদ সম্মেলন করা হয়।

গতকাল শুক্রবার বিকেলে বড়ছড়া জয়বাংলা বাজার প্রাঙ্গনে বণিক সমিতির পক্ষে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, বিণয় বুষন পাল, ভানু রঞ্জন পাল, তমাল দাস, রাজেশ তালুকদার, তারা লিখিত বক্তব্যে বলেন, গত ৩০ শে মার্চ বড়ছড়া গ্রামের সচিন্দ্র কুমার দাসের ছেলে সুব্রত দাস বাদী হয়ে জায়গা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে বড়ছড়া নিবাসী মতি মিয়ার ছেলে আলকাস মিয়া, আ. মন্নাফের ছেলে মনির হোসেন ইদু মিয়া, হাজী শহিদুল ইসলামের ছেলে সুজন মিয়া, আ. হান্নানের ছেলে ছাব্বির মিয়া, রফিকুলে ছেলে ইসলাম উদ্দিন, মৃত আবু চাঁন মিয়ার ছেলে মরম আলী গংদের বিরুদ্ধে থানায় এশটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।

এই বিষয়টি নিয়ে কে বা কাহারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ কয়েকটি নাম সর্বস্ব অনলাইন পোর্টালে তাহিরপুর উপজেলার বিশিষ্ট কয়লা আমদানীকারক, তাহিরপুর কয়লা আমদানীকারক গ্রুপের সভাপতি বিশিষ্ট দানবীর হাজী আলকাছ উদ্দিন খন্দকারকে নিয়ে সম্পূর্ণ উদ্দেশ্য প্রণোদিত ও মান সম্মান ক্ষুণ্য করার প্রয়াসে মিথ্যা ভুয়া ও বানোয়াট সংবাদ পরিবেশন করে হাজী আলকাছ উদ্দিনকে সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করেছে।

আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞাপন করছি। সেই সাথে এসব অপপ্রচারে জড়িতদের খুজে বের করে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী জানাচ্ছি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতি, এবং উপস্থিত মাননীয় সংসদ সদস্য, উপজেলা পরিষদ, চেয়ারম্যান এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও সাংবাদিকদের সম্মুখে বলতেছি যে, হাজী আলকাছ উদ্দিন খন্দকার একজন সৎ বিনয়ী সমাজসেবক ও দানবীর উনার প্রতি এলাকার কাহারো কোন প্রকার অভিযোগ নেই।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন, অভিযোগকারী বড়ছড়া গ্রামের সচিন্দ্র কুমার দাসের ছেলে সুব্রত দাস, ফনি দাসের ছেলে অসিম দাস, রাজেন্দ্র দাসের ছেলে ফনি দাস প্রমুখ।

তারাও তাদের বক্তব্যে বলে হাজী আলকাছ উদ্দন খন্দকার এলাকার একজন স্বজ্জন ব্যাক্তি, সমাজসেবক ও দানবীর, উনার প্রতি আমাদের কাহারো কোন অভিযোগ নেই। এমনকি আমরা উনার বিরুদ্ধে কোথায় কোন অভিযোগ করিনি।

উল্লেখ্য গত ১লা এপ্রিল বড়ছড়া গ্রামের বড়ছড়া গ্রামের সচিন্দ্র কুমার দাসের ছেলে সুব্রত দাস বাদী হয়ে তার সম্পত্তি দখলের অভিযোগ এনে বড়ছড়া নিবাসী মতি মিয়ার ছেলে আলকাস মিয়া, আ. মন্নাফের ছেলে মনির হোসেন ইদু মিয়া, হাজী শহিদুল ইসলামের ছেলে সুজন মিয়া, আ. হান্নানের ছেলে ছাব্বির মিয়া, রফিকুলে ছেলে ইসলাম উদ্দিন, মৃত আবু চাঁন মিয়ার ছেলে মরম আলী গংদের বিরুদ্ধে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এঘটনাটিকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে একটি মহল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ কয়েকটি অনলাইন পোর্টালে তাহিরপুর কয়লা আমদানীকারক গ্রুপের সভাপতি, উপজেলা আওয়ামীলীগ সহ সভাপতি, বিশিষ্ট দানবীর হাজী আলকাছ উদ্দিন খন্দকারের বিরুদ্ধে ”সংখ্যালগুদের জায়গা দখল ও দেশ ত্যাগের হুমকি” শিরোনামে একটি মিথ্যা ভুয়া ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত বানোয়াট সংবাদ প্রকাশ করে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন এমপি, তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল, ভাইস চেয়ারম্যান হাজী রিয়াজ উদ্দিন খন্দকার লিটন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি হাজী আব্দুস সোবহান আখঞ্জী, সহ সভাপতি আলী মর্তুজা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর খোকন, যুবলীগ আহবায়ক হাফিজ উদ্দিন পলাশ, শাহাজ উদ্দিন মেম্বার, কয়লা আমদানীকারক হাজী এম ইউনুছ আলী, হাজী আব্দুল কুদ্দুস, তাহিরপুর উপজেলা হিন্দু বৈদ্য, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক স্বপন কুমার দাস, আছমত আলী,তোথা মিয়া, রঞ্জিৎ পাল রণ, বিণয় ভুষন পাল, ভানু রঞ্জন পাল প্রমুখ।

Sharing is caring!

Loading...
Open