দাসপাড়া এলাকায় সন্ত্রাসী হামলায় আহত দুলাল এর অবস্থা আশঙ্কাজনক

সুরমা টাইমস ডেস্ক ::সিলেটের শাহপরান খাদিমপারার দাসপাড়া এলাকার দুলাল আহমদ নামে এক ব্যাক্তিকে কুপিয়ে আহত করেছে সন্ত্রাসীরা।

পরগনা বাজার তার ব্যাবসা বন্ধ করে নিজ বাড়িতে আসার সময় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে পরিকল্পিতভাবে দাসপাড়া এলাকার মৃত মদরিছ আলীর ছেলে আলাউদ্দিনের নির্দেশে তার সাথে থাকা এক দল সন্ত্রাসীরা প্রানে মারার উদ্দ্যেশে অতর্কীত এ হামলা চালিয়ে গুরুত আহত করে দুলাল আহমদকে।

এ ঘটনা ঘটেছে গত ১৯ মার্চ মঙ্গলবার রাত ১১ টায় আহত ব্যাক্তি দুলাল আহমদের বসত বাড়ির পুর্ব প্রান্তে সামনের দাসপাড়া গ্রামের চলাচলের রাস্তায়।

এ ঘটনায় আহত দুলাল আহমদের স্ত্রী রেহেনা আক্তার বাদী হয়ে শাহপরান থানায় একটি মামলা করেন যার নং১১/৪২। মামলার এজহারে খাদিম নগর এলাকার দাসপাড়া গ্রামের নির্দেশকারী আলাউদ্দিনের ছেলে আমির আলী(৩২) নাছির আলী (৩০) ও তাদের পিতা আলাউদ্দিন ও অজ্ঞাতনামা ৩/৪ জনকে আসামী করে মামলা করেছেন।মামলা সূত্রে জানা যায়,৩নং আসামী আলাউদ্দিনের সঙ্গে দীর্ঘদিন যাবৎ ভুমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে বিরোধ চলছিল।

গত ১৯ মার্চ মঙ্গলবার রাত পরগনা বাজার তার ব্যাবসা বন্ধ করে নিজ বাড়িতে আসার সময়৩নং আসামী আলাউদ্দিনের নেতৃত্বে তার দুই ছেলে আমির আলী(৩২) নাছির আলী (৩০)ও সাথে থাকা আরো ৩/৪ সন্ত্রাসী মিলে রামদা, লোহার রড, হকিস্টিক, লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে দুলাল আহমদের উপর কোপ দিয়ে গুরুতর জখম করলে তিনি মাটিতে পড়ে যান। এরপর তাকে এলোপাথারি মারা হয়। তার আর্তচিৎকার শুনে স্হানীয় লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে থাকে গুরুত অবস্হায় সিলেট এম এ জি ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেন। তবে দুলাল আহমদের অবস্থা আশঙ্কাজনক। এখন ও দুলাল আহমদ ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। শাহপরান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আক্তার হোসেন জানান,ঘটনা সত্য এবং আসামীদেরকে গ্রেফতার করার চেষ্টা চলছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open