ছাতকে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে সহায়তা দিচ্ছেন আল্লামা ইমাদ উদ্দিন চৌধুরি ফুলতলী


ছাতক প্রতিনিধি:: ছাতকে বৈদ্যুতিক সর্টসার্কিট থেকে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ৩টি বসতঘর পুড়ে যাওয়া সেই পরিবারগুলোর খবর কেউ রাখেনি।

বিভিন্ন দপ্তরে মানবিক সাহায্যের আবেদন করেও সহায়তা পায়নি উপজেলার কারারুকা ইউনিয়নের উজির গ্রামের মরহুম মাওলানা গোলাম রব্বানীর তিন পুত্র ফজলুল হক, মুমিনুল হক ও রেজাউল করিম।

ঘটনার পর থেকে পরিবার-পরিজনকে নিয়ে এ পরিবারের লোকজন খোঁলা আকাশের নীচে মানবেতর জীবন যাপন করে আসছেন। ফজলুল হক ছাতকস্থ সিলেট পাল্প এন্ড পেপারমিলের গার্ড, মুমিনুল হক আনসার বাহিনী ও ক্বারি রেজাউল করিম আনজুমানে আল ইসলাহ ছাতক (উত্তর) উপজেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক ও ইসলামপুর ইউনিয়নের রহমতপুর গ্রামের জামে মসজিদে ইমামতির পাশাপাশি ওই গ্রামের মাদরাসায় শিক্ষকতা করে আসছিলেন।

অগ্নিকান্ডে বসতঘর পুড়ে গিয়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির বিষয়ে সম্প্রতি লতিফিয়া ক্বারি সোসাইটি ও আল-ইসলাহ নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে ফুলতলী বড় ছাহেব কিবলার বরাবরে একটি আবেদন করা হয়। এর প্রেক্ষিতে বুধবার বেলা আড়াইটার উজিরপুর গ্রামে উপিস্থত হন উপমহাদেশের প্রখ্যাত ওলী, শামছুল উলামা আল্লামা আবদুল লতিফ চৌধুরি ছাহেব কিবলা ফুলতলীর (রহ) এঁর বড় ছাহেবজাদা, এতিম মিছকিনসহ অসহায় বনী আদমের বন্ধু, আল্লামা ইমাদ উদ্দিন চৌধুরি ফুলতলী।

এসময় তিনি ক্ষতিগ্রস্থ বাড়িটি পরিদর্শন করে মানবেতর জীবন-যাপনকারিদের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়ে তাৎক্ষনিক তিনটি পরিবারকে নগদ অর্থ ও নিত্য প্রয়োজনীয় আসবাবপত্র তুলে দেন। দু’এক দিনের মধ্যে তিনটি অসহায় পরিবারের জন্য পৃথক তিনটি বসতঘর নির্মাণ ও একটি টিউবওয়েল স্থাপন করে দিবেন বলে তিনি জানান।

এসময় দারুল কিরাত মজিদিয়া ফুলতলী ট্রাস্ট’র প্রধান কেন্দ্রের অফিস প্রধান মাওলানা জিল্লুল হক, মাওলানা ছাদ উদ্দিন, মাওলানা নাসির উদ্দিন, ছাতক জালালিয়া ফাজিল মাদরাসার অধ্যক্ষ, লতিফিয়া ক্বারি সোসাইটি ছাতক (উত্তর) উপজেলা শাখার সভাপতি মাওলানা আবদুল আহাদ, সুনামগঞ্জ জেলা আল ইসলাহর সাধারণ সম্পাদক, কালারুকা ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসার সুপার মাওলানা মাহবুবুর রহমান তাজুল,

জেলা আল ইসলাহর শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক, দশঘর দাখিল মাদরাসার সুপার মাওলানা মোশাহিদ আলী, জেলা আল ইসলাহর অফিস সম্পাদক, সিংচাপইড় আলিম মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা মুখতার আহমদ, শাহসূফি মোজ্জাম্মিল আলী (রহ:) দাখিল মাদরাসার সুপার মুফতি মাওলানা আবদুস সালাম, আল-ইসলাহ ছাতক উপজেলা (উত্তর) শাখার সভাপতি মাওলানা এমএ মতিন, সহ-সাধারণ সম্পাদক মাওলানা শামছুল হুদা, মোহাম্মদ আবদুল আলীম, নুরুল্লাহপুর ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসার সুপার মাওলানা জাহাঙ্গির আলম, গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়ন আল-ইসলাহর সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আবদুল কাহার, সুনামগঞ্জ জেলা তালামীযের সাংগঠনিক সম্পাদক তোফায়েল আহমদ মিনার, অফিস সম্পাদক আবদুল মতিন রাজন, হাফেজ আশিক উদ্দিন, ফরিদ উদ্দিন, মাওলানা আলতাবুর রহমান, মাওলানা আলী আসগর, মাওলানা ছায়াদ আহমদ, মাওলানা শরিফ উদ্দিন, আলী হোসেন, এইচ এম আবদুল বাছিতসহ ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের লোকজন উপস্থিত ছিলেন। প্রসঙ্গত, ৫ মার্চ রাত সাড়ে ১০টায় উজিরপুর গ্রামের মরহুম মাওলানা গোলাম রাব্বানীর ৩পুত্র ফজলুল হক, মুমিনুল ইসলাম ও রেজাউল করিমের বসতঘরে বৈদ্যুতিক সর্টসার্কিট থেকে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এতে টিনসেডের তিনটি ঘরসহ নগদ টাকা, আসবাবপত্র এবং যাবতীয় মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়। খবর পয়ে দমকল বাহিনী উপস্থিত হয়ে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে। ফায়ার সার্ভিস ও থানা পুলিশের বক্তব্য অনুযায়ি প্রায় ২০ লক্ষ টাকা মূল্যের ক্ষতি সাধিত হলে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারদের দাবি ৪০ লক্ষ টাকা।

Sharing is caring!

Loading...
Open