জনবিচ্ছিন্ন কেউ জোর করে নির্বাচিত হতে গেলে জনরোষে পতিত হবেন- ফয়সল চৌধুরী

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গোলাপগঞ্জ-বিয়ানীবাজার আসনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী ফয়সল আহমদ চৌধুরী বলেছেন, জনবিচ্ছিন্ন কেউ জোর করে নির্বাচিত হতে গেলে জনরোষে পতিত হবেন।

তিনি মঙ্গলবার বিয়ানীবাজারে জাতীয়তাবাদী ওলামাদল আয়োজিত আলোচনা সভায় আরো বলেন, দশ বছর মন্ত্রী থেকেও যে জনবিচ্ছিন্ন , তিনি আজ প্রশাসনকে ব্যবহার করে নির্বাচনে জিততে চান। বিএনপি নেতা কর্মীদের পেছনে পুলিশ লেলিয়ে দিয়ে, ধানের শীষের পোষ্টার ব্যানার তার অশুভ অনুসারীদের দিয়ে সরিয়ে নিয়ে, তিনি যে কায়দায় নির্বাচন করছেন তা গোলাপগঞ্জ বিয়ানীবাজারের সাধারন ভোটার প্রত্যক্ষ করছেন এবং তারা আগামী ৩০ ডিসেম্বর ব্যালটের মাধ্যমে এর জবাব দিবেন।

বিয়ানীবাজার উপজেলা জাতীয়তাবাদী ওলামাদলের সভাপতি মাহবুব আহমদ এর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মাওলানা বেলাল এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় অন্যান্য বক্তরা অভিযোগ করে বলেন, আওয়ামী দলীয় প্রার্থী পুলিশ প্রটোকল নিয়ে জনসংযোগ করছেন, কিন্তু নির্বাচন কমিশন তা দেখেও না দেখান ভান করছে অন্যদিকে সিলেট জেলা রির্টানিং কর্মকর্তা বরাবরে আবেদন করেও কোন সুরাহা হচ্ছেনা যা, নিরপেক্ষ নির্বাচনের ক্ষেত্রে সহায়ক নয়।

এদিকে দুপুরে বিএনপি প্রার্থী ফয়সল আহমদ চৌধুরী গোলাপগঞ্জ বাজারে গনসংযোগ করতে গেলে শত শত মানুষ স্বতস্ফুর্ত ভাবে গনসংযোগে অংশগ্রগন করেন। গনসংযোগকালে ফয়সল চৌধুরী আসন্ন নির্বাচনকে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির নির্বাচন উল্লেখ করে মানুষের বাক, ব্যক্তি ও চলাফেরার স্বাধীনতা নিশ্চিত করতে ধানের শীষে ভোট দেয়ার আহবান জানান। এসময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপি নেতা ছালিক আহমদ চৌধুরী, সৈয়দ হাসান মাহমুদ বাবু, বনিক সমিতির সভাপতি আলেকুজ্জামান আলেক সহ ঐক্যফ্রন্ট নেতৃবৃন্দ।

অন্যদিকে মঙ্গলবার রাতে আলীনগর ইউনিয়নের সর্বস্থরের জনগনের সাথে এক মতবিনিময় সভায় বিএনপি প্রার্থী ফয়সল আহমদ চৌধুরী গনতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্যে ধানের শীষে ভোট দেবার আহবান জানিয়ে বলেন, আমরা কারো তাবেদার হয়ে থাকতে চাই না। দেশের মালিকানা দেশের সাধারন মানুষের হাতে ফিরিয়ে দিতে চাই।

আলীনগর ইউনিয়নের প্রবীন মুরব্বী সৈয়দ আব্দুল হান্নান এর সভাপতিত্বে এবং ইউপি বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক নাওয়াজিশ চৌধুরীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন, সৈয়দ আব্দুল হান্নান, আব্দুস সহীদ, কামরুল হাসান শাহীন,সরওয়ার হোসেন, মামুন আহমদ, ফরিদ উদ্দিন ত্বকী, রাজু আহমদ চৌধুরী, হাজি ফারুক আহমদ, গিয়াস উদ্দিন, আব্দুল মান্নান প্রমুখ।

বিএনপি প্রার্থী ফয়সল আহমদ চৌধুরী গ্রেফতারকৃত গোলাপগঞ্জ সদর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ চৌধুরী, ফুলবাড়ী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান ফয়সল, বিএনপি নেতা হেলাল উদ্দিন, যুবদল নেতা শাহাবুদ্দিন, গ্রেফতারকৃত বাংলাদেশ জামাযাতে ইসলামীর বিয়ানীবাজার উপজেলার নায়েবে আমীর হাফিজ মাওলানা মুফাচ্ছির আহমদ, সেক্রেটরী ফরিদ আহমদ, গোলাপগঞ্জ পৌরসভার আমীর নাছির উদ্দিন চৌধুরী সহ গ্রেফতার কৃত সকল নেতাকর্মীর নিঃশর্ত মুক্তি দাবী করেন। –বিজ্ঞপ্তি

Sharing is caring!

Loading...
Open