বিয়ের আসরে বসা হলো না রুম্পার

ডেস্ক রিপোর্ট:: কাবিন হয়েছে, কিন্তু করা হলো না সংসার। বিয়ের অনুষ্ঠান হওয়ার কথা ছিল আগামী মাসে। এর আগেই বাস কেড়ে নিল নারী চিকিৎসকের প্রাণ।

মঙ্গলবার ভোর পৌনে ৫টার দিকে রাজধানীর বিজয় স্মরণির মোড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত ওই চিকিৎসকের নাম আক্তার জাহান রুম্পা (২৮) নামে এই নারী। সিলেট থেকে তিনি ঢাকায় এসেছিলেন ইন্টারভিউ দিতে। ঢাকায় দেখা হওয়ার কথা ছিল স্বামীর সঙ্গেও। তিনি সিলেটের ওসমানীনগরের ভার্ড চক্ষু হাসপাতালের চিকিৎসক ছিলেন।

নিহত রুম্পা চট্টগ্রামের হালিশহর এলাকার এ ব্লকের বাসিন্দা। রুম্পা চট্টগ্রাম ওসমানীনগরে বার্টস আই হাসপাতালে কর্মরত ছিলেন।

নিহতের বাবার নাম আক্তারুজ্জামান ও মায়ের নাম নুরজাহান বেগম। দুই ভাই ও এক বোনের মধ্যে রুম্পা ছিলেন দ্বিতীয়।

রুম্পার স্বামী ডা. মহসিন ফারুক বলেন, ‘ধানমন্ডির আই হাসপাতালে ইন্টারভিউ দেওয়ার জন্য সিলেট থেকে এসেছিলেন রুম্পা। মঙ্গলবার সকালে মহাখালী থেকে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় চড়ে যাচ্ছিল সে। আমি আসছিলাম চট্টগ্রাম থেকে।’

ফারুক কান্নাজড়িত কণ্ঠে আরও বলেন, ‘আজ তার সাথে আমার দেখা হতো। তবে দেখা হলো জীবিত না মৃত অবস্থায়।’

প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন জানান, মহাখালীগামী গ্রিনলাইন পরিবহনের একটি বাস সিএনজিকে ধাক্কা দিলে সেটি রাস্তায় উল্টে পড়ে। এপর আরেক ধাক্কায় অটোরিকশাটি একপাশে ছিটকে যায়। এতে রুম্পা এবং সিএনজিচালক গুরুতর আহত হন। উদ্ধার করে চালককে স্থানীয় হাসপাতালে পাঠানো হয়। রুম্পাকে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পরে রুম্পার স্বামী এসে লাশ শনাক্ত করেন।বিকেলে ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের সদস্যরা লাশ চট্টগ্রামে বাবার বাড়ির উদ্দেশে নিয়ে যান।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মিনহাজ উদ্দিন। তিনি বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য মৃতদেহটি মর্গে রাখা হয়। আহত সিএনজিচালক স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
সূত্র জানায়, ডা. রুম্পা ভার্ড হাসপাতালে চলতি বছরের ৫ মার্চে যোগদান করার পর হাসপাতালের পাশের একটি বাসায় ভাড়া থাকতেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open