যৌতুক মামলা করে নিরাপত্তাহীনতায় গৃহবধূ


হবিগঞ্জ প্রতিনিধি :: হবিগঞ্জ শহরতলীর বহুলা গ্রামে যৌতুক মামলা করে বিপাকে পরেছেন এক নির্যাতিত গৃহবধু। মামলা তুলে নেয়ার জন্য প্রতিনিয়ত তাকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিচ্ছে স্বামীর বাড়ির লোকজন। এতে নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছে ওই গৃহবধূ ও তার বাবার বাড়ির লোকজন।

জানা যায়, গত বছরের ১লা অক্টোবর ৪ লাখ কাবিনে নাতিরাবাদ এলাকার জিতু মিয়ার মেয়ে রুমা আক্তারের সাথে বিয়ে হয় বড় বহুলা গ্রামের সফর আলীর ছেলে সাহেদ আলীর। বিয়ের পর কয়েক মাস তাদের দাম্পত্ত্য জীবনে সুখ হলেও এক সময় সাহেদ আলী মাদক সেবনের সাথে জড়িয়ে পরে। এক পর্যায়ে টমটম অটোরিক্স কেনার জন্য রুমাকে তার বাবার বাড়ি থেকে টাকা এনে দেয়ার চাপ সৃষ্টি করে। এতে সে রাজি না হলে সাহেদ মিয়া তার উপর নির্যাতনন চালায়। এক পর্যায়ে রুমা নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে বাবার বাড়ি চলে যায় এবং হবিগঞ্জ সদর থানায় একটি যৌতুক মামলা দায়ের করে।

এ ঘটনায় মামলার দুই আসামী স্বামী সাহেদ আলী ও শাশুড়ি আজিজুন্নেছাকে আটক করে পুলিশ। বর্তমানে তারা কারাগারে রয়েছেন।

এদিকে, মামলা তুলে নেয়ার জন্য সাহেদ আলীর পরিবারের লোকজন রুমাকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে আসছে। এতে নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছে রুমা ও তার বাবার বাড়ির লোকজন। এ ব্যাপারে রুমা হবিগঞ্জ সদর থানায় একটি মৌখিক অভিযোগ দায়ের করেছে বলে জানায় সে।

এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ সদর থানার ওসি তদন্ত বলেন- আমরা বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখছি।

Sharing is caring!

Loading...
Open