তাহিরপুরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারী-পুরুষসহ আহত ২৫

তাহিরপুর প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নারী-পুরুষসহ ২৫ জন আহত হয়েছেন। গুরুতর ২ জনকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে এবং ৬ জনকে তাহিরপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার বিকালে তাহিরপুর উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের ভুরাঘাট গ্রামের পিছনে এই রক্তক্ষয়ী সংঘষের্র ঘটনাটি ঘটেছে।

উভয়পক্ষের গুরুতর আহতদের মধ্যে রয়েছেন- নিপেন্দ্র বর্মন (৫০), জিতেন্দ্র বর্মন (৪৫), অষ্টমী বর্মন (৩৫), নিয়তি বর্মন (৫০), দুলাল বর্মন (২২), সুভাষ বর্মন (১৮), শ্রীমতি বর্মন (৬৫), সুকুমার দাস।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ভুরাঘাট গ্রামের জিতেন্দ্র বর্মন এবং একই গ্রামের রাজিন্দ্র ও অতুল বর্মনের লোকজনের মধ্যে গত দুর্গাপূজায় গ্রামের পূজামন্ডপে ব্যানার টানানোকে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে গ্রাম্য সালিশে স্থানীয় ওয়ার্ড সদস্য সুধাংশু পালের মাধ্যমে জিতেন্দ্র দাসের লোকজন অতুল দাসের লোকজনের কাছে ক্ষমা চাইলে বিষয়টি নিষ্পতি হয়।

শুক্রবার দুপুরে জিতেন্দ্র দাসের লোকজন চুনখলা হাওর থেকে মাছ শিকার করে বাড়ীতে ফেরার পথে ভুরাঘাট গ্রামের পিছনে অতুল বর্মনের লোকজন পূর্ব শত্রুতার জের ধরে রামদা দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জিতেন্দ্র দাসের পক্ষের ৭জনকে গুরুতর আহত করে। পরে বিষয়টি জিতেন্দ্র বর্মনের লোকজনের মধ্যে জানাজানি হলে দুইপক্ষের লোকজনের মধ্যে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে প্রায় ঘন্টাব্যাপী রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়। এতে আরো আহত হয় জুয়েল দাস (১৮), বিমান দাস, রুবেল দাস, সেবক বর্মনসহ উভয়পক্ষের প্রায় ২৫ জন।

শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড সদস্য সুধাংশু পাল বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গত দুর্গাপূজায় মন্ডপে ব্যানার টানানোকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। তিনি বলেন, বিষয়টি অনেক আগেই গ্রাম্য শালিসে নিষ্পত্তি করা হলেও এই ঘটনাটি কেন্দ্র করে পুনরায় তারা সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছে।

তাহিরপুর থানার ওসি নন্দন কান্তি ধর বলেন, ভুরাঘাট গ্রামে সংঘষের্র একটি ঘটনা ঘটেছে বলে শুনেছি, এ ব্যাপারে থানায় কেউ এখনও লিখিত অভিযোগ করেনি।

Sharing is caring!

Loading...
Open