কারও পৌষ মাস, কারও সর্বনাশ…….!

সুরমা টাইমস ডেস্ক:: গতকালের দিনটি ছিল এমনই। দুটি মন জুড়েছে, লখো মন ভেঙ্গেছে। আর মন ভাঙ্গার অপরাধে অপরাধী হয়েছেন বলিউড তারকা দীপিকা পাড়ুকোন ও রণবীর সিং।

স্টাইল, সৌন্দর্য, মেধা আর মিষ্টি হাসির জাদুতে দীপিকা জয় করে নিয়েছেন লক্ষ পুরুষের মন। দীপিকাকে এক নজর দেখার জন্য এই ভক্তরা ত্যাগ করতে রাজি আছেন সব কিছু।

অন্যদিকে দারুণ ফিটনেসের অধিকারী সুদর্শন রণবীর সিং এর মেধা আর কৌতুকের ভক্ত লক্ষ নারী। এই জুটির বিয়েতে মন ভেঙ্গেছে এসব ভক্তের।

অবশ্য দীপিকা-রণবীর জুটির ভক্তও নেহাত কম নয়। আর তাই এই জুটির বিয়ের দিনটি ছিল বছরের সবচাইতে কাঙ্ক্ষিত একটি দিন।

ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড়, মডেল, বলিউড-হলিউড অভিনেত্রী পরিচয়ের পাশাপাশি দীপিকার এখন আরেকটি পরিচয় হলো। তিনি এখন রণবীরের স্ত্রী। রণবীরও অবশ্য এখন থেকে পরিচয় দিতে পারবেন যে তিনি দীপিকার স্বামী। কেউ কারও থেকে যেন কম নয়। সমানে সমান।

রণবীর কাপুরের সঙ্গে দীপিকা যখন সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন, তখন নিয়মিত শিরোনামে আসতেন তারা। রণবীরকে খুব ভালবেসেছিলেন দীপিকা। ‘আরকে’ লিখে ট্যাটু করিয়েছিলেন ঘাড়ে। কিন্তু রণবীর প্রতারণা করেছেন দীপিকার সঙ্গে।

জড়িয়েছেন দীপিকার বান্ধবী বলিউড অভিনেত্রী ক্যাটরিনার সঙ্গে। বিষয়টি মানতে পারেননি দীপিকা। মন ভেঙ্গে যায় তার। বিষণ্ণতায় ভুগতে শুরু করেন। কিন্তু বিষণ্ণতা গ্রাস করতে পারেনি তাকে।

২০১৩ সালে সঞ্জয় লীলা বনসালির‘রাম-লীলা’ ছবিতে জুটি বেঁধে অভিনয় করতে গিয়ে দারুণ সখ্য গড়ে ওঠে দীপিকা পাড়ুকোন ও রণবীর সিংয়ের মধ্যে। একসঙ্গে ঘুরে বেড়ানোর পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে ঘন ঘন দেখা যেতে থাকে এ জুটিকে। প্রেম নিয়ে জোর গুঞ্জন ছড়ায় বলিউডে। কিন্তু বরাবরই অস্বীকার করে আসছিলেন এই জুটি।

কারণ, সম্পর্কের ব্যাপারে রণবীর আত্মবিশ্বাসী থাকলেও আগের সম্পর্কে প্রতারিত হওয়ায় দীপিকা আত্মবিশ্বাসী ছিলেন না। পাঁচ বছর প্রেম করার পর সব গুঞ্জনকে সত্য প্রমাণ করে ২১ অক্টোবর অফিশিয়ালি বিয়ের ঘোষণা দেন এই জুটি। অনস্ক্রিনের সফল জুটি বাস্তব জীবনেও নিজেদের সফল প্রমাণ করলেন।

বিয়ের দিন তারিখ জানার পর থেকেই ভক্তরা দিন গুণতে শুরু করেন বিশেষ দিনটির জন্য। অবশেষে দিনটি এলো, কিন্তু ছবি এলো না। তাই ভক্তরা এখন অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন দীপিকা রণবীরের ছবি দেখার জন্য।

জানা গেছে, বিয়ের ছবি নিলামে তুলছেন না এই জুটি। আজ সন্ধ্যায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাদের অফিশিয়াল পেজগুলো থেকে শেয়ার করা হবে বিয়ের কাঙ্ক্ষিত ছবি।

Sharing is caring!

Loading...
Open