নির্বাচন পেছানোর সুযোগ নেই

সুরমা টাইমস ডেস্ক:: নির্বাচন পেছানোর সুযোগ নেই। ৩০ ডিসেম্বরই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিবালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ।

রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনের মিডিয়া সেন্টারে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ৩ সপ্তাহ নির্বাচন পেছানোর দাবি চুলচেরা বিশ্লেষণ করে ৩০ ডিসেম্বরের পরে নির্বাচন পেছানোর ইসির কাছে যথেষ্ট যুক্তিযুক্ত এবং বাস্তবসম্মত না হওয়ায় নির্বাচন পেছানের আর কোনো সুযোগ নেই বলে ইসি সিদ্ধান্ত দিয়েছে।

এর আগে প্রধান নির্বাচন কমিশার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদার সভাপতিত্বে কমিশনে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার, মো. রফিকুল ইসলাম, বেগম কবিতা খানম ও ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরীসহ ইসি সচিবালয়ের সচিব উপস্থিত ছিলেন।

সচিব বলেন, ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচন পেছানোর দাবির বিষয়ে বৈঠকে পর্যালোচনা করা হয়েছে। জানুয়ারি মাসে বেশ কয়েকটি আইনী ও সাংবিধানিক বিষয় রয়েছে। হাতে যথেষ্ট সময় নিয়ে কাজগুলো করতে হবে। যেমন যদি পুনঃনির্বাচন, উপনির্বাচন করতে হয়, নির্বাচনে অনিয়ম হলে তদন্ত করা, গেজেড প্রকাশ করা, নব নির্বাচিত সংসদ সদস্যদের শপথ গ্রহণ ইত্যাদি।

এছাড়াও বিশ্ব ইজতেমা জানুয়ারি দ্বিতীয় এবং তৃতীয় সপ্তাহে অনুষ্ঠিত হবে। প্রায় ৩০ থেকে ৪০ লাখ ধর্ম প্রাণ মুসল্লি অংশ নিয়ে থাকেন এবং লক্ষাধিক আইন শৃঙ্খলাবাহিনী মোতায়েন থাকেন। সব দিক বিবেচনা করে এবং চুলচেরা বিশ্লেষণ করে ৩০ ডিসেম্বরের পরে নির্বাচন পেছানোর ইসির কাছে যথেষ্ট যুক্তিযুক্ত এবং বাস্তবসম্মত না হওয়ায় নির্বাচন পেছানের আর কোনো সুযোগ নেই বলে ইসি সিদ্ধান্ত দিয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে সচিব বলেন, ‘বিদেশি পর্যবেক্ষক নয়, আমরা এদেশের নাগরিক যে ১০ কোটি ৪১ লাখ ভোটার তাদের বিষয়গুলো আগে বিবেচনা করব। তবে বিদেশি পর্যবেক্ষকদের সবসময় আমরা স্বাগত জানাই।’

Sharing is caring!

Loading...
Open