তফসিল ঘোষণায় বাধা সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে

সুরমা টাইমস ডেস্ক:: নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ জানিয়েছেন, রাজশাহীতে জনসভাসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বিভিন্ন কর্মসূচিতে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির সৃষ্টির হলে তা মোকাবেলা করার জন্য আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে নির্দেশনা দেওয়া হবে। তিনি বলেন, কেউ যদি তফসিল ঘোষণায় বাধা সৃষ্টি করে, তাহলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আজ বুধবার আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

ঐক্যফ্রন্টের রোডমার্চ ঘোষণায় তফসিলের পরে জনগণের অসুবিধা হয় এমন কোনো কর্মসূচি হলে কমিশন কী করবে জানতে চাইলে ইসি সচিব বলেন, আমরা এখনো অবহিত নই (কর্মসূচির বিষয়ে)। যখন জানব তখন আলোচনা করব। তফসিল ঘোষণার পরই আইন শৃঙ্খলাবাহিনীও ইসির অধীনে থাকবে। কোনো ধরনের বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে পরিস্থিতি মোকাবেলায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশনা দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, ৮ নভেম্বর তফসিল ঘোষণায় আমাদের পূর্ব সিদ্ধান্তে অটল থাকতে বলেছে আওয়ামী লীগ। বিতর্কিত প্রতিষ্ঠানের বিতর্কিত কর্মকর্তাদের যেন ভোটগ্রহণ কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া না হয় এ বিষয়টিও তারা আমাদের জানিয়েছে।

তিনি আরো বলেন, অনিবন্ধিত দলের সঙ্গে সংলাপ না করার পরামর্শ দিয়েছে আওয়ামী লীগ। বিষয়টি আপনাদের অবহিত করলাম। কমিশন সংলাপ করছে উনারা (আওয়ামী লীগ) পরামর্শ দিয়েছে। কার সঙ্গে সংলাপ করবে না করবে তার সিদ্ধান্ত নেবে কমিশনই।

ইভিএম ব্যবহারের বিষয়ে হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, এই ভোটযন্ত্র ব্যবহারে আওয়ামী লীগ পোলিং এজেন্টদের পর্যাপ্ত প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করার দাবি জানিয়েছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open