১৪-১৫ জন জাহিদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়


সুরমা টাইমস ডেস্ক :: সিলেটে অভ্যন্তরীণ বিরোধের জের ধরে হুসাইন আল জাহিদ নামের এক ছাত্রলীগ কর্মী খুন হয়েছেন। বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে নগরীর উপশহরে তাকে ছুরিকাঘাত করা হয়। পরে ওসমানী হাসপাতালে নেয়ার পর তিনি মারা যান।
জাহিদ নগরীর তেররতন সৈদানীবাগ ১৯/৩৭নং বাসার কামাল মিয়ার ছেলে।

সিলেট নগরীর সীমান্তিক স্কুলের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থ ছিলেন জাহিদ। তিন ভাই ও এক বোনের মধ্যে তিনি সবার ছোট । জাহিদ জেলা ছাত্রলীগ নেতা এইচ আর সুমন গ্রুপের কর্মী ছিলেন। এই খুনের জন্য জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক জাকারিয়া মাহমুদের গ্রুপকে দায়ী করছে সুমন গ্রুপ।
স্থানীয় সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে নগরীর উপশহরস্থ সরকারি তিব্বিয়া কলেজের সামনে দিয়ে কয়েকজন বন্ধুর সাথে হেঁটে যাচ্ছিলেন হুসাইন আল জাহিদ। এসময় জাকারিয়া মাহমুদ গ্রুপের ১৪-১৫ জন তাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। জাহিদের তলপেটে ছুরিকাঘাত করা হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে মারা যান জাহিদ। হামলায় ছাত্রলীগের আরো ৩ কর্মী আহত হয়েছেন। তাদেরকে ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে মহানগর পুলিশের শাহপরান থানার ওসি আক্তার হোসেন বলেন, ‘খুনের সাথে জড়িতদের গ্রেফতারে মাঠে নেমেছে পুলিশ। একইসাথে খুনের মোটিভ উদঘাটনের চেষ্টা চলছে।’

Sharing is caring!

Loading...
Open