তুষার জানেন না কেন বহিষ্কার হলেন


নিজস্ব প্রতিবেদক :: সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আলীম তুষারকে দল থেকে স্থায়ী বহিষ্কার করেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। পাশাপাশি মহানগর কমিটিও বিলুপ্ত করা হয়েছে। রবিবার বিকালে এক বিজ্ঞপ্তিতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

২০১৫ সালের ২০ জুলাই গঠন হওয়া আব্দুল বাছিত রুম্মান ও আব্দুল আলীম তুষারের নেতৃত্বাধীন চার সদস্যের কমিটির মেয়াদ এক বছর থাকলেও সেটি তিন বছরের বেশীসময় ধরে দায়িত্ব পালন করছিল। রবিবার এ কমিটি বিলুপ্ত করে নতুন কমিটি গঠনের জন্য সিভি আহবান করা হয়েছে।

মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি বিলুপ্ত হলেও কেন বহিষ্কার হয়েছেন সে ব্যপারে কিছুই জানেন না আব্দুল আলীম তুষার। যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন- হঠাৎ করে কমিটি বিলুপ্ত করে কেন তাকে বহিষ্কার করা হয়েছে সেটি জানেন না তিনি। এমনকি তাকে বহিষ্কারের আগে তার সাথে কেন্দ্র থেকে কোন ধরনের যোগাযোগ করা হয়নি। বিজ্ঞপ্তিতে সংগঠনের নীতি আদর্শ পরিপন্থী নৈতিকস্খলনজনিত গুরুতর অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় তাকে স্থায়ী বহিস্কার করা হয়েছে। কিন্তু তিনি এধরনের কোন কাজে জড়িত নন বলে দাবী করেন।
তুষার বলেন- ‘বহিষ্কারের নোটিশ পাওয়ার পর আমি দলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদকের সাথে ফোনে আলাপ করে আমাকে কেন বহিষ্কার করা হয়েছে সেটি জানতে চাই। কিন্তু তিনি আমাকে এ ব্যপারে স্পষ্ট কোন কারণ জানান নি।

এদিকে, সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের নতুন কমিটি গঠনের জন্য আগামী ১ নভেম্বরের মধ্যে পদপ্রত্যাশী নেতাদের জীবনবৃত্তান্ত জমা দিতে আহবান জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

Sharing is caring!

Loading...
Open