২৯টি দুর্গাপূজা মণ্ডপে মোয়াজ্জেম হোসেন রতন এমপি‘র ব্যক্তিগত অনুদান


সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার ২৯টি দুর্গাপূজা মণ্ডপে ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন এমপি‘র ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে অনুদান বিতরণ করা হয়েছে।

তাহিরপুর উপজেলা পূজা পরিষদের আয়োজনে উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে মতবিনিময় সভা শেষে প্রতিটি পূজা মণ্ডপে নগদ ১০ হাজার টাকা করে এই আর্থিক অনুদান প্রদান করা হয়।

এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সুনামগঞ্জ-১ আসনের সাংসদ ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার উন্নয়নের সরকার। তাই সকল ধর্ম বর্ণের মানুষের নিরাপত্তায় সরকার কাজ করে যাচ্ছে। ২০০৮ সালের পূর্বে তাহিরপুর উপজেলায় ১৭টি দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হতো, বর্তমানে তাহিরপুর উপজেলায় ২৯টি দুর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আইন শৃঙ্খলা বাহিনী বিভিন্ন ধর্মীয় উৎসবে সার্বক্ষণিক নিরাপত্তায় কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, আমি সুনামগঞ্জ-১ নির্বাচনী এলাকায় নৌকা প্রতীক বিজয়ের লক্ষে সভা সেমিনার করে যাচ্ছি। এ নির্বাচনী এলাকায় কিছু প্রার্থী আছে যারা বিভিন্ন সভা সেমিনারে বলে আসছে এ সরকারের আমলে কোন উন্নয়ন হয় নাই। অথচ তারাই নৌকা প্রতীকে প্রার্থী হতে চাইছে। তাদের প্রতি সবাইকে সতর্ক থাকতে আহবান জানান তিনি।

উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ ঐক্য পরিষদের আহবায়ক অনুপম রায়ের সঞ্চালনায় উপজেলা পূজা পরিষদের সভাপতি সুভাষ পুরকায়স্থের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল হোসেন খান বলেন, সুনামগঞ্জ-১ নির্বাচনী এলাকার ৭জন মনোনয়ন প্রত্যাশী একত্রিত হয়ে বর্তমান সরকারের উন্নয়নের কথা না বলে তারা সভা সেমিনারে বর্তমান সাংসদকে ঘায়েল করার লক্ষে বলে যাচ্ছে।

এ সরকারের আমলে কোন উন্নয়ন হয়নি বলে তারা অপপ্রচার চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।
এসময় তিনি আরো বলেন, বর্তমান সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই বিগত ১০ বছর ধরে তিনি ব্যক্তিগত ভাবে তার নির্বাচনী এলাকার প্রতিটি পূজা মণ্ডপে অনুদান দিয়ে আসছেন। যা বিগত দিনে অন্য কোন সংসদ সদস্যরা করেননি।

মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আলী মর্তূজা, ইকবাল হোসেন তালুকদার, সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জিতেন্দ্র তালুকদার পিন্টু, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক স্বপন কুমার রায়, সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর খোকন, যুবলীগ আহবায়ক হাফিজ উদ্দিন, পূজা মণ্ডপ কমিটির পক্ষে বক্তব্য রাখেন- কেশব রায়, ডা. রতন কুমার গাঙ্গুলী, মন্টু বর্মণ, মিলন তালুকদার, জগদীশ রায় প্রমুখ।বিজ্ঞপ্তি

Sharing is caring!

Loading...
Open