বিশ্বনাথে গ্রেফতাকৃত ১৭ জামায়াত নেতাকে আদালতে প্রেরণ

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি :: সিলেটের বিশ্বনাথে রোববার (২৩সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় একটি গোপন বৈঠক থেকে জেলা দক্ষিণ জামায়াতের সেক্রেটারী ও দক্ষিণ সুরমা উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মাওলানা লোকমান আহমদ, বিশ্বনাথ উপজেলা জামায়াতের আমীর, নায়েবে আমীর ও সেক্রেটারী’সহ গ্রেফতারকৃত ১৭ নেতাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ১৫/৩, ২৫-ডি ধারায় মামলা দায়েরের পর আজ সোমবার বেলা ২টায় তাদেরকে আদালতে প্রেরণ করা হয়।
রোববার রাতে বিশ্বনাথ থানায় এস আই সুলতাল উদ্দিন বাড়ি হয়ে আটককৃতদের বিরুদ্ধে এই মামলাটি দায়ের করেন (মামলা নং-২৬, তাং- ২৩/০৯/২০১৮)। মামলায় গ্রেফতারকৃত ১৭ জন সহ মোট ৩৩জন জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ ও আরো অজ্ঞাতনামা ৩০/৪০ জনকে আসামী করা হয়েছে।
গ্রেফতারকৃতরা হলেন- সিলেট জেলা দক্ষিণ জামায়াতের সেক্রেটারী ও দক্ষিণ সুরমা উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মাওলানা লোকমান আহমদ, বিশ্বনাথ উপজেলা জামায়াতের আমীর আব্দুল কাইয়ুম, নায়েবে আমীর মাষ্টার এমাদ উদ্দিন, সেক্রেটারী মতিউর রহমান, সহকারী সেক্রেটারী আব্দুল মুকসিত আখতার, সাবেক সেক্রেটারী এএইচএম আখতার ফারুক, উপজেলা জামায়াতের কর্মপরিষদ সদস্য মাওলানা আনোয়ার হোসেন, বিশ্বনাথ ইউনিয়ন জামায়াতের সভাপতি এখলাছুর রহমান, রামপাশা ইউনিয়ন জামায়াতের সভাপতি হাজী আব্দুন নুর, সেক্রেটারী রজব আলী, দৌলতপুর ইউনিয়ন জামায়াতের সভাপতি বাবুল মিয়া, সেক্রেটারী তালেব আহমদ গোলাপ, অলংকারী ইউনিয়ন জামায়াতের আমীর জাহেদুর রহমান, সেক্রেটারী কামাল আহমদ, লামাকাজী ইউনিয়ন জামায়াতের নুরুল ইসলাম, সহকারী সেক্রেটারী আব্দুস শহিদ ও খাজাঞ্চী ইউনিয়ন জামায়াতের সেক্রেটারী আব্দুল মালিক।
মামলা দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) শামসুদ্দোহা পিপিএম বলেন, সরকার বিরোধী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত থাকায় আটককৃতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে এবং তাদেরকে আদালতে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে

Sharing is caring!

Loading...
Open