আফজাল শরীফের চিকিৎসা হবে চেন্নাইয়ে

সুরমা টাইমস ডেস্ক:: অভিনেতা আফজাল শরীফকে চিকিৎসার জন্য ২০ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গত বুধবার দুপুরে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে তিনি এই অভিনেতার কাছে চেক হস্তান্তর করেন।

সেই টাকায় এবার চিকিৎসা নিতে ভারতের চেন্নাই যাচ্ছেন এই অভিনেতা। আজ (শনিবার) সন্ধ্যায় এমনটাই নিশ্চত করলেন আফজাল শরীফ।

দীর্ঘ চার বছর ধরে মেরুদণ্ড, কোমর ও হাড়ের ব্যথায় ভুগছেন ঢাকাই ছবির পাঁচ শতাধিক ছবির এই অভিনেতা। এজন্য সিনেমায়ও তিনি ছিলেন অনিয়মিত। কিছুদিন পরপর থেরাপি নেয়াসহ চিকিৎসায় মোটা অঙ্কের টাকা খরচ করেছেন। তবুও পুরোপুরি সুস্থ হতে পারছিলেন না। প্রয়োজন ছিল আরও অনেক টাকা। কিন্তু সেই টাকার জোগার করতে পারছিলেন না তিনি।

বাধ্য হয়ে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এই অভিনেতাকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সাহায্যের আবেদন করতে হয়েছিল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেই আবেদনে সাড়া দিয়ে গত ১৯ সেপ্টেম্বর তার চিকিৎসার জন্য ২০ লাখ টাকা প্রদান করেন।

এবার সেই টাকায় উন্নত চিকিৎসা নিতে যাচ্ছেন আফজাল শরীফ। তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর কাছে কৃতজ্ঞতা জানানোর ভাষা নেই আমার। তিনি আমার মতো অনেক শিল্পীর বিপদে পাশে দাঁড়িয়েছেন। আল্লাহও যেন তার বিপদে পাশে থাকেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমার উন্নত চিকিৎসার জন্য সবকিছু গুছিয়ে আনা হয়েছে। আগামী মাসের শেষের দিকে চেন্নাই যাব। আমি যে সমস্যায় ভুগছি সবাই বলছে চেন্নাইতে তার ভালো চিকিৎসা হয়। তাই সেখানেই যাচ্ছি। সবার কাছে আমি দোয়া চাই যেন সুস্থ হয়ে ফিরে আসতে পারি। আমি আরও অনেকদিন অভিনয়ে থাকতে চাই।’

প্রসঙ্গত, হুমায়ূন আহমেদ রচিত ও পরিচালিত টিভি ধারাবাহিক ‘বহুব্রীহি’ নাটকে অভিনয়ের মাধ্যমে ১৯৮৮ সালে ছোটপর্দায় আত্মপ্রকাশ করেন আফজাল শরীফ। এরপর ১৯৯২ সালে গৌতম ঘোষ পরিচালিত ‘পদ্মা নদীর মাঝি’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে আসেন আফজাল শরীফ।

কমেডিয়ান হিসেবে ২০১০ সালে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে ভূষিত হন তিনি।

Sharing is caring!

Loading...
Open