সিলেটে পুলিশের বাঁধায় ‘প্রেম আমার-২’ ছবির শুটিং বন্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদক::       সিলেটের এমসি কলেজে কলকাতার পরিচালক বিদুলা ভট্টাচার্যের চলচ্চিত্র ‘প্রেম আমার- ২’ এর শুটিং বন্ধ করে দিয়েছে পুলিশ। ছাড়পত্র না থাকার অজুহাতে শুক্রবার দুপুরে এই শুটিং বন্ধ করে দেওয়া হয়।

কলকাতার প্রযোজক রাজ চক্রবর্তী ও বাংলাদেশি প্রযেজোনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার যৌথ প্রযেজোনায় নির্মিত এই ছবির শুটিং হবে সিলেটে। শুক্রবার সকাল ৬ টা থেকে এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে শুটিং শুরু হয়।

এতে ছবির নায়ক কলকাতার অদ্রিত ও নায়িকা বাংলাদেশের পূজা চেরীও অংশ নেন।

চলচ্চিত্রটির সাথে সংশ্লিস্ট একাধিক ব্যক্তি নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, কলেজ ও পুলিশ প্রশাসনের অনুমতি নিয়েই শুটিং শুরু হয়। সকাল থেকে শুটিং চললেও দুপুরের দিকে স্থানীয় কয়েকজন ছাত্রলীগ নেতারা এতে বাধা দেন। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শুটিং বন্ধ করে দেয়।

এতে শুটিং বন্ধ করে হোটেলে ফিরে আসেন কলাকুশলীরা। শুটিং করতে না পারায় বিরাট ক্ষতির মুখে পড়তে হবে বলেও জানান তারা।

পরবর্তী দিন থেকে পুণরায় শুটিং শুরু করতে প্রশাসনের সাথে আলোচনা চলছে বলেও জানান তারা।

এ ব্যাপারে নগরীর শাহপরান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আখতার হোসেন শুক্রবার রাত ১২টায় বলেন, ‘প্রেম আমার- ২’ ছবির ভারতীয় কলাকুশলীদের বাংলাদেশে কাজ করার ছাড়পত্র নেই। তা এলসি ইস্যু করেননি। তাই শুটিং বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। প্রয়োজনীয় ছাড়পত্র নিয়ে আসতে বলা হয়েছে তাদের।

উল্লেখ্য, ২০০৯ সালে কলকাতায় মুক্তি পেয়েছিল রাজ চক্রবর্তীর ছবি ‘প্রেম আমার’। পশ্চিমবঙ্গের সোহম-পায়েল সরকার মূলত এ ছবিটি দিয়েই নায়ক-নায়িকা হিসেবে টলিউডে থিতু হন। বাংলাদেশেও বেশ জনপ্রিয়তা পায় এটি।

এখন ছবিটির সিকুয়েল নির্মাণ করা হচ্ছে। আর এতে অভিনয় করছেন বাংলাদেশের পূজা চেরী ও কলকাতার অদ্রিত।

তবে এটি প্রযোজনা করছেন পরিচালক রাজ চক্রবর্তী নিজেই। তার তত্ত্বাবধানে এটি পরিচালনা করছেন বিদুলা ভট্টাচার্য।

গত ও চলতি বছর ছবিটির প্রায় ৫০ শতাংশ কাজ হয়েছিল। বাকি দৃশ্যধারণের জন্য পরিচালক-প্রযোজক শুটিং ইউনিট নিয়ে এখন সিলেটে অবস্থান করছেন।

যৌথ প্রযোজনায় নির্মিতব্য এই ছবিটির প্রযোজনায় থাকছে বাংলাদেশের জাজ মাল্টিমিডিয়া ও কলকাতার রাজ চক্রবর্তী প্রডাকশনস।

Sharing is caring!

Loading...
Open