মৌলভীবাজারে তথ্য গোপন রেখে সরকারি চাকুরি…….!

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি::    নানা অনিয়ম ও দূর্নীতির হুতা মৌলভীবাজার বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের লাইন সাহায্যকারী প্রবীর দাসের বিরুদ্ধে বুধবার দুপুরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে মৌলভীবাজার দুর্নীতি মুক্তকরণ যুব ফোরাম। মৌলভীবাজার অফিসের প্রকৌশলীর মাধ্যমে উর্ধ্বতন কর্তৃপকের কাছে এ অভিযোগ দায়ের করা হয়।

অভিযোগ থেকে জানা যায়, তথ্য গোপন রেখে প্রবীর দাস ৪৪ বছর বয়সে বাম হাতের লেনদেনের বিনিময়ে মৌলভীবাজার বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের লাইন সাহায্যকারীর চাকুরি নেন। নির্বাচন অফিসের এক কর্মকর্তাকে ম্যানেজ করে আইডি কার্ডে ১৪ বছর বয়স কমান প্রবীর। সরকারের নিয়ম অনুযায়ী চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা সর্বোচ্চ ৩০ বছর। অভিযোগ থেকে জানা যায়, প্রবীর দাস রাজনগর উপজেলার পাঁচগাঁও ইউনিয়নের পরেশ দাসের ছেলে। স্কুল থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী ১০/১০/১৯৭০ইং তারিখে জন্ম গ্রহণ করেন প্রবীর দাস। কিন্তু এখন তার ভোটার আইডি কার্ডে প্রবীরের জন্ম তারিখ ১৫/০১/১৯৮২ইং। অভিযোগে আরোও উল্লেখ করা হয়, তার গ্রামের বাড়ি রাজনগর উপজেলার পাঁচগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১৯৭৯ সালে পঞ্চম শ্রেণীতে ছিলেন প্রবীর। বিদ্যালয়ের রেজিষ্ট্রার খাতা ঘাটিয়ে দেখা যায় তখন তার ক্লাস রোল ছিল ৩।

পরে আর লেখাপড়ায় আগাতে পারেনি প্রবীর। অথচ সে সার্টিফিকেট জালিয়াতি করে হবিগঞ্জ সদরের আশেরা উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে অষ্টম শ্রেণীর জাল সার্টিফিকেট দিয়েছেন প্রবীর। এছাড়াও প্রবীরের বিরুদ্ধে এনালগ মিটার জালিয়াতি ও অবৈধ লাইন সংযোগ দিয়ে টাকা আদায়ের অভিযোগ রয়েছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের সভাপতি সৈয়দ ময়নুল ইসলাম রবিন, সাধারণ সম্পাদক এম এ সামাদ, মৌলভীবাজার দুর্নীতি মুক্তকরণ ফোরাম সহ-সাধারণ সম্পাদক ও অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি মশাহিদ আহমদ ও সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সাংগঠনিক সম্পাদক চিনু রঞ্জন তালুকদার প্রমুখ।

Sharing is caring!

Loading...
Open