নিলামে ‘প্রিন্সেস ডায়ানার বোরকা’

সুরমা টাইমস ডেস্ক:: ১৯৮৬ সালে প্রিন্সেস ডায়ানার উপসাগরীয় অঞ্চল ভ্রমণের জন্য নকশা করা একটি বোরকা চলতি মাসে যুক্তরাষ্ট্রে নিলামে তোলা হবে। এসময় অন্যান্য পোশাকের নকশা এবং কাপড়ের নমুনাও প্রদর্শন করা হবে।

বিবিসি জানিয়েছে, এসব পোশাক এসেছে ডেভিড ও এলিজাবেথ এমানুয়েলের ফ্যাশন হাউজ থেকে। তারা প্রিন্সেস ডায়ানার বিয়ের পোশাকেরও নকশা করেছিলেন।

এক চিঠিতে গালফ ট্যুরের জন্য পোশাকের নকশার নির্দেশনা দিয়ে প্রিন্সেস ডায়ানার রাজকীয় সাহায্যকর্মী লিখেছেন, ‘সব দিকে মার্জিত পোশাক হবে প্রধান বিবেচ্য বিষয়।’

ডিজাইনাররা একটি বিভাগের নাম দিয়েছেন ‘দি গালফ ট্যুর ১৯৮৬ : দিবা ও সান্ধ্য-কালীন পোশাকের নকশা।’

এর মধ্যে রয়েছে ডিজাইনারের হাতে আঁকা নকশার পাঁচটি মূল পোশাক। একটি বোরকার বিষয়ে লেখা আছে: ‘প্রিন্সেস অব ওয়েলস, সৌদি আরব সফর, নভেম্বর, ১৯৮৬, রিজার্ভ আউট-ফিট।’

একটি নেভি এবং সাদা ডোরাকাটা কোট, সান্ধ্যকালীন পোশাক, সাদা সিল্ক ক্রেপে এমব্রয়ডারি করা ক্রিস্টাল বসানো আরেকটি সান্ধ্যকালীন পোশাকও থাকবে নিলামে।

একজন সংগ্রাহকের ব্যক্তিগত সংগ্রহ থেকে এসব পণ্য বিক্রি করা হবে। এসবের মূল্য ধরা হয়েছে ২৩ হাজার পাউন্ড।

ডিজাইনার এলিজাবেথ এমানুয়েলকে উদ্দেশ্য করে ডায়ানার রাজকীয় সাহায্যকর্মী অ্যানি বেক-উইথ-স্মিথ গালফ ট্যুরের জন্য পোশাকের ডিজাইন করতে অনুরোধ জানিয়ে যে চিঠি লিখেছিলেন সেটিও এই নিলামে স্থান পাবে।

বেক-উইথ-স্মিথ বলেন, সবগুলোতেই মার্জিত পোশাকের ব্যাপারটিকে প্রাধান্য দিতে হবে।

নিলামের উদ্যোক্তারা জানান, উপসাগরীয় অঞ্চলে ও সৌদি আরব সফরের সময় প্রিন্সেস ডায়ানা পোশাকের ক্ষেত্রে স্থানীয় রীতি-নীতির সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে পোশাক পরার চেষ্টা করেন। তবে গলা এবং মাথা অনাচ্ছাদিতই রেখেছিলেন তিনি।

তারা জানান, তবে রিজার্ভ আউট-ফিট হিসেবে মার্ক করা বোরকা প্রিন্সেস ডায়ানার পরা হয়নি। সান্ধ্যকালীন ভোজসভায় লম্বা হাতাওয়ালা পোশাক পরে উপস্থিত হতে দেখা গেছে তাকে। যেসব পোশাকও ওই সফরের জন্য বিশেষভাবে তৈরি করা হয়েছিল।

Sharing is caring!

Loading...
Open