ঐশ্বরিয়ার ওপর ক্ষেপেছেন পরিচালক

সুরমা টাইমস ডেস্ক:: অনুরাগ কাশ্যপের ‘গুলাব জামুন’-এর জন্য নাকি সঞ্জয় লীলা বনশালির সিনেমায় না করে দিয়েছেন ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন। দীর্ঘ ৮ বছর পর স্বামী অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে অভিনয় করার জন্যই নাকি বনশালির সিনেমা ছেড়েছেন ঐশ্বরিয়া। সম্প্রতি এমনই গুঞ্জন শুরু হয়েছে বলিউডের আনাচে কানাচে। কিন্তু, সঞ্জয় লীলা বনশালি কখনওই ঐশ্বরিয়াকে তাঁর আগামী সিনেমার জন্য প্রস্তাব দেননি।

শুধু তাই নয়, ‘বাজিরাও মস্তানি’ এবং ‘পদ্মাবত’-এর জন্যও নাকি কখনও বনশালি রাই-কে প্রস্তাব দেননি। এসব বিষয়ে যা বলা হচ্ছে, তার পুরোটাই গুজব বলেও দাবি করেছেন সঞ্জয় লীলা বনশালির মুখপাত্র।

এ বিষয়ে বলিউডের এই জনপ্রিয় পরিচালকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, কয়েক বছর আগে ‘বাজিরাও মস্তানি’-র কথা প্রকাশ্যে আনেন তিনি। ‘বাজিরাও মস্তানি’-র জন্য ওই সময় তাঁর প্রথম পছন্দ ছিলেন করিনা কাপুর খান। কিন্তু, যে কোনওভাবে করিনার সঙ্গে কাজ করা হয়নি ওই সময়।

কিন্তু, ‘পদ্মাবত’-এর জন্য প্রথম থেকেই দীপিকা পাডুকনকে বেছে নিয়েছিলেন বলেও জানিয়েছেন এই পরিচালক। এই সিনেমার জন্য কখনও অন্য কোনও অভিনেত্রীর কথা ভাবা হয়নি বলেও দাবি করেছেন বনশালি। কিন্তু, কীভাবে এই ধরনের গুজব মুড়ি মুরকির মত ছড়িয়ে পড়ছে, সে বিষয়েও প্রশ্ন তোলেন বলিউডের এই পরিচালক।

সম্প্রতি শোনা গেছে, অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে অভিনয় করার জন্য নাকি সঞ্জয় লীলা বনশালির সিনেমায় না করেছেন রাই। শুধু তাই নয়, বনশালির সিনেমায় না করে ঐশ্বরিয়া তাঁর ক্যারিয়ারের অন্যতম বড় ভুল করে ফেললেন বলেও বলিউড ক্রিটিকদের একাংশের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়। যদিও ঐশ্বরিয়া এ বিষয়ে নিজে কখনও মুখ খোলেননি।

প্রসঙ্গত, আরাধ্যার জন্মের পর ‘জজবা’ দিয়ে রুপোলি পর্দায় কামব্যাক করেন ঐশ্বর্য। কিন্তু, পরিচালক সঞ্জয় কাপুরের ওই সিনেমায় কাজ করেনি ‘রাই এফেক্ট’। এরপর ঐশ্বরিয়ার ‘সর্বজিত’-ও ফ্লপ করে। হালফিলের ‘ফ্যানি খান’-ও বলিউডে সেভাবে পসার জমাতে পারেনি। সবকিছু মিলিয়ে ঐশ্বরিয়া কি এবারে আবার বলিউডে ধামাকা করতে পারবেন ‘গুলাব জামুন’ দিয়ে, তা নিয়েই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। –জিনিউজ

Sharing is caring!

Loading...
Open