কাউন্সিলর ফরহাদ চৌধুরী শামীমকে নাগরিক সংবর্ধনা

খন্দকার আব্দুল মালিক ফাউন্ডেনের চেয়ারম্যান, বিশিষ্ট শিল্পপতি ও সমাজসেবী খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির বলেছেন- একজন জনপ্রতিনিধি যদি প্রকৃত সেবক হন, তাহলে দেশ জাতি ও সমাজ উপকৃত হবে। জনগণের মূল্যায়নই জনপ্রনিধিদের সফলতা। নাগরিক সেবা নিশ্চিত করে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ৬নং ওয়ার্ডকে মডেল ওয়ার্ড হিসেবে গড়ে তোলার মাধ্যমে ফরহাদ চৌধুরী শামীম জনতার হৃদয়ে ঠাই নিয়েছেন। যার ফলে টানা পনের বছর জনগণ তাঁকে তাদের অভিভাবক হিসেবে মেনে নিয়েছে। যা সিসিক নির্বাচনে একটি মাইলফলক হয়ে থাকবে। এথেকে অন্যান্য জনপ্রতিনিধিগণও অনুপ্রাণিত হবেন।

তিনি শুক্রবার ‘আলোর অন্বেষণ’এর উদ্যোগে সিসিক ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ফরহাদ চৌধুরী শামীমকে দেয়া নাগরিক সংবর্ধনা ও স্মারক ‘উন্নয়ন অগ্রযাত্রার ১৫ বছর’-এর মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।

‘আলোর অন্বেষণ’র সভাপতি সাজন আহমদ সাজু’র সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারী তফাজ্জুল হক সুমনের পরিচালনায় চৌকিদেখীস্থ কাউন্সিলর কার্যালয় মাঠে অনুষ্ঠানে স্মারকের মোড়ক উন্মোচন করেন কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদ সিলেটের সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান মাহমুদ রাজা চৌধুরী।

সাহিত্য কর্মী আব্দুল কাদির জীবনের কুরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে সুচীত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- কবি ও সাহিত্য সমালোচক অধ্যাপক বাছিত ইবনে হাবীব, সাবেক ওয়ার্ড কমিশনার আবু নসর বকুল, সিলেট জেলা বারের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আশরাফুল ইসলাম, সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফেরদৌস চৌধুরী রুহেল, চৌকিদেখী পঞ্চায়েত কমিটির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শাহরাজ।

৬নং ওয়ার্ডের বিশিষ্ট মুরব্বিয়ানদের মধ্য থেকে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন- ছমির আলী, শফিক মিয়া, শায়েস্থা মিয়া, আব্দুস শহীদ, সাজিদুর রহমান, আলতা মিয়া, মফিজুল ইসলাম, সামসুল হক, নাজিম উদ্দিন, ছানাউর রহমান, কবির আহমদ, আব্দুল হামিদ, আব্দুল কুদ্দুস, সিরাজুল ইসলাম, ময়না মিয়া, দুলাল মিয়া, সুলতান আহমদ, জিডি রুমু ধর, মনজিত রানা, সোহরাব আহমদ পবলু, ভৈরব নাথ, সুভাস নাথ, সাহেদ আহমদ চমন, লুৎফুর রহমান, আসাদুজ্জামান শহীদ, লোকমান আহমদ লিটন, এম. মখলিছ খান, রহুল আমিন, আমিন আহমদ, তারেক আহমদ বিলাস, জাহিদুল হোসেন মাসুদ ও সাহেদ আহমদ প্রমুখ।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- রংধনু চৌকিদেখী, প্রভাতী পীর মহল্লা, তরঙ্গ সমাজ উন্নয়ন কমিটি, পঞ্চদশ সমাজ কল্যাণ সংস্থা, তেপান্তর সমাজ কল্যাণ সংস্থা, ৬ নং ওয়ার্ড সমাজ কল্যাণ পরিষদ, সূর্যদয় যুব সংঘ, পুস্পাঞ্জলি সংঘ, বাস্থহারা সমাজ কল্যাণ সংস্থা, আরএমএস ক্রীড়া সংস্থা, শ্রমজীবী বহুমুখী সমবায় সমিতি, পাহাড়তলী ক্রীড়াচক্র, উদয়ন তরুণ সংঘ, ২নং সড়ক সমাজ উন্নয়ন কমিটি, ৬ নং গলি সমাজ উন্নয়ন সংস্থা ও ৬নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন সামজিক সংগঠনের সভাপতি সাধারণ সম্পাদক সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

সভাপতির বক্তব্যে সাজন আহমদ সাজু বলেন- জনপ্রতিনিধিগণ হলেন আমাদের অভিভাবক। সকল মানুষই তার কর্মে মানুষের হৃদয়ে জায়গা করে নেয়। আর এরা হলেন আমাদের সত্যিকার গুনীজন। যে সমাজে গুনীজনের কদর হয়না, সেই সমাজে গুনীজন জন্ম নেয়না। তাই সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকেই এই নাগরিক সংবধর্নার আয়োজন এবং স্মারকগ্রন্থ ‘উন্নয়ন অগ্রযাত্রার ১৫ বছর’এর প্রকাশনা। এই স্মারকে ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলারের টানা ১৫ বছরের উন্নয়নের কিছুটা তথ্য ও উপাত্ত তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে। আমাদের ক্ষুদ্র আয়োজনকে সফল করার জন্য উপস্থিত সবাইকে আন্তরিক মোবারকবাদ।

সংবর্ধনার জবাবে কাউন্সিলর ফরহাদ চৌধুরী শামীম বলেন- আমি জনপ্রতিনিধি হিসেবে নয়, একজন সেবক হিসেবেই দীর্ঘ ১৫ বছর ওয়ার্ডবাসীর সেবাকে নিজেকে উৎসর্গ করেছি। এই দীর্ঘ সময়ে ওয়ার্ডবাসীর ভালবাসা ও সহযোগিতাই ছিল আমার প্রধান চালিকা শক্তি ও উন্নয়ন-অগ্রযাত্রার মুলমন্ত্র। সন্ত্রাস, মাদক ও জলাশয় মুক্ত মডেল ওয়ার্ড গঠনে আমি আপ্রাণ চেষ্টা করেছি। সফলতা ও ব্যর্থতার মুল্যায়নের ভার আমার ওয়ার্ডবাসীর উপর ছেড়ে দিয়েছি। আমার মত একজন নগন্য জনপ্রতিনিধিকে নিয়ে এমন বিশাল আয়োজনে আমি আবেগাপ্লুত। আপনাদের ভালবাসা ও দোয়া নিয়ে জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত পাশে থাকতে চাই।—বিজ্ঞপ্তি।

Sharing is caring!

Loading...
Open