দলে ঘাপটি মেরে থাকা বিশ্বাসঘাতকরাই নৌকাকে ডুবিয়েছে-সিলেটে ওবায়দুল কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক :: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন- ‘সিলেট সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর পরাজয় এমনি-এমনি হয়নি। দলের মধ্যে ঘাপটি মেরে থাকা বিশ্বাসঘাতকরাই সিদ্ধান্ত নিয়ে নৌকাকে ডুবিয়েছে। এ নিয়ে কেন্দ্রে অনেক অভিযোগ পড়েছে। এসব অভিযোগ খতিয়ে দেখতেই আমরা সিলেটে এসেছি। কারো বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমানিত হলে তাকে শাস্তি পেতে হবে। বিশ্বাসঘাতক কেউই রেহাই পাবেন না’।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের বিষয় নিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন- সিটি নির্বাচনে নির্বাচন কমিশন পরীক্ষামুলকভাবে ইভিএম মেশিন ব্যবহার করেছে। এতে ভোটগ্রহণ যেমন সুবিধাজনক হয়েছে তেমনি গণনাও সহজ হয়েছে। ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার কিছুক্ষণ পরই ফলাফল জানা যাচ্ছে।

বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন- সিটি নির্বাচনের তিন সিটির একটিতে আপনাদের প্রার্থী বিজয়ী হয়েছে। তবে, ইভিএম নিয়ে এত কথা কেন? আপনারা আসলে কি চান?

ওবায়দুল কাদের আরো বলেন- ২০০১ সালের মত কোন নির্বাচন এদেশে আর হবে না। তাই কোন ষড়যন্ত্র করে লাভ হবে না। জনগণ ভোট দিয়েই আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনবে। কারচুপি করার ইচ্ছা থাকলে এই সিলেটে মেয়র পদে এত অল্প ভোটে পরাজিত হতে হত না। এটা শেখ হাসিনার নির্দেশ, অনিয়ম কারচুপি করে নির্বাচনে জয়ী হওয়ার কোন ইচ্ছা বা অভিলাষ আমাদের নেই।

সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের সভাপতিত্বে ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরীর পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, এনামুল হক শামিম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী ও সদস্য অধ্যাপক রফিকুর রহমান।

এছাড়াও বক্তব্য রাখেন- সিলেট-৪ আসনের সংসদ সদস্য ইমরান আহমদ, সিলেট-৩আসনের সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এড. লুৎফুর রহমান ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ।

Sharing is caring!

Loading...
Open