শ্রমিক নেতা লাঞ্ছিতের জেরে বড়লেখায় দুপক্ষের পাল্টাপাল্টি ধাওয়া,সড়ক অবরোধ

বড়লেখা প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলা ট্রাক, পিকআপ, ট্যাংক-লরি ও ট্রাক্টর সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মঈন উদ্দিন (৫৫)-কে লাঞ্ছিতের জের ধরে দু’পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় পরিবহণ শ্রমিকরা বড়লেখা পৌরশহরের উত্তর চৌমুহনী ও উত্তর শাহবাজপুর বাজারে প্রায় আড়াইঘন্টা সড়ক অবরোধ করে রাখেন। পরে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনার সুষ্ঠু সমাধানের আশ্বাস দিলে শ্রমিকরা অবরোধ তুলে নেন।

আজ শুক্রবার (১৭ই আগস্ট) বিকেল সাড়ে চারটার দিকে এ ঘটনাটি ঘটেছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা ট্রাক, পিকআপ, ট্যাংক-লরি ও ট্রাক্টর সড়ক পরিবহণ সভাপতি মঈন উদ্দিনকে শুক্রবার বিকেল চারটার দিকে উপজেলার উত্তর শাহবাজপুর বাজারে বুড়ারগুল গ্রামের তুহিন আহমদ নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী ধাক্কা দেন। এনিয়ে দুজনের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। একপর্যায়ে মঈন উদ্দিন তুহিনকে চড়-তাপ্পড় মারেন।  এর কিছুক্ষণ পর তুহিন আত্মীয়-স্বজন নিয়ে এসে স্থানীয় একটি রেস্টুরেন্টে মঈন উদ্দিনকে মারধর করেন। এসময় তুহিনের স্বজনদের সঙ্গে পরিবহণ শ্রমিকদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

এর প্রতিবাদে পরিবহণ শ্রমিকরা শাহবাজপুর বাজারে বিক্ষোভ মিছিল করেন এবং বিকেল ৪টা থেকে সাড়ে ৬টা পর্যন্ত বড়লেখা-শাহবাজপুর এলজিইডি সড়ক অবরোধ করে রাখেন। একই সময় পরিবহণ শ্রমিকরা কুলাউড়া-চান্দগ্রাম আঞ্চলিক মহাসড়কের বড়লেখা পৌরশহরের উত্তর চৌমুহনা এলাকায় প্রায় আধঘন্টা অবরোধ করে রাখেন। এ সময় কুলাউড়া-চান্দগ্রাম আঞ্চলিক মহাসড়কের উত্তর চৌমুহনী ও বড়লেখা-শাহবাজপুর এলজিইডি সড়কের শাহবাজপুর  বাজারে ছোট-বড় কয়েকশ’ যানবাহন আটকা পড়ে যানজটের সৃষ্টি হয়।

এবিষয়ে উপজেলা ট্রাক, পিকআপ, ট্যাংক-লরি ও ট্রাক্টর সড়ক পরিবহণ শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক জাবের উদ্দিন শুক্রবার রাতে বলেন,‘এক যুবক আমাদের পরিবহণ শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মঈন উদ্দিনকে মোটরসাইকেল দিয়ে ধাক্কা মেরেছে। পরে আবারও তাঁকে (মঈন) মারধর করা হয়েছে। তাঁকে আহত অবস্থায় হাসপাতলে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে আমরা সড়ক অবরোধ করেছি। পরে পুলিশ ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দেওয়ার আমরা অবরোধ তুলে নিয়েছি।’

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে উত্তর শাহবাজপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ (পুলিশ পরিদর্শক) মোহাম্মদ মেশারফ হোসেনের মুঠোফোনে কল করা হলে তিনি রিসিভ করে পরে কথা বলবেন বলে সংযোগ কেটে দেন।

বড়লেখা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ সহিদুর রহমান শুক্রবার রাত নয়টায় বলেন, ‘পরিবহণ শ্রমিক ইউনিয়নের নেতা মঈন উদ্দিনকে এক মোটরসাইকেল আরোহী মোটরসাইকেল দিয়ে ধাক্কা দেন। এসময় দুজনের মধ্যে তর্কাতর্কি ও পরে মারামারির ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয়ভাবে শুনেছি। এ খবরে পরিবহণ শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ করে রাখে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বিষয়টি সমাধানের আশ্বাস দিলে শ্রমিকরা অবরোধ তুলে নেয়। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open