জাতির পিতার অপর নাম স্বাধীন বাংলাদেশ: শফিক চৌধুরী

নিজস্ব প্রতিবেদক, বিশ্বনাথ :: জাতীয় শোক দিবস ও স্বাধীনতার মহান স্থপতি, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদাৎবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সিলেটের বিশ্বনাথে উপজেলা আওয়ামী লীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে বুধবার বিকেলে আলোচনা সভা, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এরপূর্বে সকালে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তক অর্পন করেন আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম না হলে বাংলাদেশ কখনই স্বাধীন হতো না। আমরাও আজ মাতৃভাষায় কথা বলতে পারতাম না। তাই জাতির পিতার অপর নাম স্বাধীন বাংলাদেশ। লাল-সবুজের পতাকায় বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকবেন চিরকাল। আর জাতির পিতার কন্যা শেখ হাসিনা নেতৃত্ব দিয়ে বাঙালী জাতিকে পৌঁছিয়ে দিচ্ছেন উন্নয়নের সর্বোচ্চ শিখড়ে। বঙ্গবন্ধুর খুনীদের বিচারের রায় দ্রুত কার্যকর করে জাতিকে কলঙ্কমুক্ত করবে আওয়ামী লীগের নেতৃতবাধীন সরকার।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পংকি খানের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সম্পাদক মকদ্দছ আলীর পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি শাহ আসাদুজ্জামান আসাদ, সমছু মিয়া, মো. আসাদুজ্জামান, যুগ্ম সম্পাদক শাহ ফয়েজ আহমদ সেবুল, সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল আজিজ সুমন, বন ও পরিবেশ সম্পাদক রুনু কান্ত দে, খাজাঞ্চী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শংকর চন্দ্র ধর, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আলতাব হোসেন, যুবলীগ নেতা মুহিবুর রহমান সুইট, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শীতল বৈদ্য। সভার শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন দৌলতপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী আরিফ উল্লাহ সিতাব।

অনুষ্ঠানগুলোতে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি হাজী ইরন মিয়া, দপ্তর সম্পাদক সাহিদুল ইসলাম সাহিদ, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক সাধন চন্দ্র দাস, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক জহরুল হোসেন জহির, সহ প্রচার সম্পাদক ও প্রকাশনা সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন, কার্যনির্বাহী সদস্য শেখ নূর মিয়া, আকবর আলী, আনোয়ার আলী, মিজানুর রহমান মিজান, নিজাম উদ্দিন, বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সুফি সামছুল ইসলাম, সহ সভাপতি বীরেন্দ্র কর, সাধারণ সম্পাদক মহব্বত আলী, অলংকারী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তফজ্জুল আলী, দেওকলস ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল মোমিন, সাধারণ সম্পাদক দিলোয়ার হোসেন রুপন, দশঘর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি তজম্মুল আলী, সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস মিয়া, উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি হাজী আমির আলী, সহ সভাপতি তাজির আলী, নির্বাহী সম্পাদক আজাদ মিয়া, যুগ্ম সম্পাদক শাহজাহান সিরাজ, সাংগঠনিক সম্পাদক আরান দে, সাবেক কার্যকরী সভাপতি শংকর দাশ শংকু, উপজেলা দলিল লেখক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সেলিম আহমদ, রামপাশা ইউপির মেম্বার জামাল আহমদ, যুবলীগ নেতা জাবেদ মিয়া, তৈমুছ আলী, আবুল কালাম আজাদ, মনোহর হোসেন মুন্না, ইউসুফ আলী, দবির মিয়া, সাদ নূর মাস্টার, রুহেল উদ্দিন, ফুলকাছ মিয়া, উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের প্রচার সম্পাদক সিজিল মিয়া, ছাত্রলীগ নেতা কামরুল ইসলাম, সিরাজুল ইসলাম রুকন, রুহেল আহমদ, এনামুল হক বিজয়, শাহ মুজিব, মিয়াদ আহমদ, জাকির হোসেন, এস এম জুয়েল প্রমুখ’সহ আওয়ামী লীগ, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

Sharing is caring!

Loading...
Open