ছাত্রদল নেতা তাওহীদ হত্যা মামলায় ছাত্রলীগের ১৬ জন খালাস

স্টাফ রিপোর্টার::
সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (সিওমেক) এমবিবিএস ৪র্থ বর্ষের ছাত্র ও কলেজ ছাত্রদলের আপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম তাওহীদ হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করা হয়েছে। মামলায় ১৬ জন আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের খালাস দেওয়া হয়। গতকাল সোমবার দুপুরে সিলেট মহানগর অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালতের বিচারক বেগম মমিনুন নেসা এ রায় ঘোষণা করেন।
মামলায় খালাসপ্রাপ্ত ১৬ জন হলেন ছাত্রলীগ নেতা মো. মুশফিকুজ্জামান আকন্দ রাফি, হাফিজুর রহমান, ফারহান আনজুম নিশাত পাঠান, অন্তরদীপ ওরফে অনন্ত, কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি সৌমেন দে ওরফে শাওন, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হাই, আবু সালাহ মো. ফাহিম, শরিফুল ইসলাম খান, মো. জুবায়ের ইবনে খায়ের ওরফে জুবায়ের, জহুর রায়হান রিপন, এটিএম তামজিদুল ইসলাম সজল ওরফে সজয়, মো. সারওয়ার হোসেন টুটুল, মো. ওয়াহিদুর রহমান খান, মো. আরিফুর রহমান চৌধুরী, মো. আফজালুল আলম আফজাল ও আশিষ কুমার শীল। আদালতের অতিরিক্ত পিপি অ্যাডভোকেট মো. মাসুক আহমদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৪ সালের ৪ জুন রাতে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজের এমবিবিএস ৪র্থ বর্ষের ছাত্র এবং কলেজ ছাত্রদলের আপ্যায়ন বিষয়ক সম্পাদক তাওহীদকে ওসমানী মেডিকেল কলেজের আবু সিনা ছাত্রাবাসের ১০০৩ নং কক্ষে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে কতিপয় সিওমেক ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। পরে ওসমানী হাসপাতালে রাত সাড়ে ৮টার দিকে তার মৃত্যু হয়।
এই ঘটনায় ছাত্রলীগের ২০ নেতা-কর্মীর নামে হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহত তাওহীদের চাচা আনোয়ার হোসেন। মামলা নং {মামলা নং-০৪(০৬)১৪}।

Sharing is caring!

Loading...
Open