গোলাপগঞ্জের পল্লিতে যুবকের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার

গোলাপগঞ্জ প্রতিনিধি :: গোলাপগঞ্জের পল্লিতে অর্ধগলিত অবস্থায় অজ্ঞাত এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে গোলাপগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ। সোমবার সকালে উপজেলার লক্ষ্মিপাশা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের লক্ষ্মিপাশা মোরাদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পার্শ্বে একটি ডোবা থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সকালের দিকে উপজেলার দক্ষিণ লক্ষ্মিপাশা গ্রামের মোরাদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পার্শ্বে একটি ডোবায় অজ্ঞাত যুবকের লাশ দেখতে পান এলাকাবাসী। সাথে সাথে তারা বিষয়টি পুলিশকে অবগত করেন। তাৎক্ষনিকভাবে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার উপ-পরিদর্শক মঞ্জুরুল হাসান একদল পুলিশ নিয়ে লাশ উদ্ধার করেন। লাশের সমস্ত শরীর অর্ধগলিত থাকার ফলে তাৎক্ষণিক তার পরিচয় সনাক্ত করা যায়নি।

ম্যাডিকেল রিপোর্টে আসল রহস্য উদঘাটন হবে বলে জানান উপ-পরিদর্শক মঞ্জুরুল হাসান। তবে পুলিশ প্রাথমিক অবস্থায় ধারনা করছে অজ্ঞাত কোন স্থানে হত্যা করে তার লাশ ডোবায় ফেলে যায় দুবৃর্ত্তকারীরা। অজ্ঞাত ঐ যুবকের পরণে ছিল লুঙ্গি ও শার্ট এবং তার বয়স ধারনা করা হচ্ছে আনুমানিক ৩০ বছর। লাশটি ২/৩ দিনের পুরোনো বলে ধারনা করছে পুলিশ। লাশ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ ব্যপারে লক্ষ্মিপাশা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মাহমুদ আহমদের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি প্রতিবেদককে জানান, লক্ষিপাশা মোরাদিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পার্শ্বের একটি ডোবায় সকালে অজ্ঞাতনামা এক যুবকের অর্ধগলিত লাশ দেখতে পায় এলাকার লোকজন। বিষয়টি আমাকে জানালে আমি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পুলিশকে দেই। পুলিশ লাশ উদ্ধার করেছে।

গোলাপগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম ফজলুল হক শিবলী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, লাশ উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open