দাবি মেনে নেয়ার পর আন্দোলন অযৌক্তিক: কাদের

সুরমা টাইমস ডেস্ক :: বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নেয়ার প্রক্রিয়া শুরুর পর আন্দোলন করা অযৌক্তিক বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বৃহস্পতিবার বিকালে সোনারগাঁও হোটেলে ঢাকা সাবওয়ে (আন্ডারগ্রাউন্ড মেট্রো) নির্মাণে সম্ভব্যতা সমীক্ষা পরিচালনায় পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

শিক্ষার্থীরা এখনো আন্দোলন করে যাচ্ছে এভাবে সমস্যার সমাধান হবে কিনা সাংবাদিকদের প্রশ্নে কাদের বলেন, তাদের দাবিনামা যৌক্তিক আমি আগেও বলেছি, দাবিনামা মেনে নেয়ার পর আন্দোলন হয় সেটা কিন্তু অযৌক্তিক হবে।

মন্ত্রী বলেন, দাবিনামা মেনে নেয়ার পথে অনেক দূর এগিয়ে গেছি এবং অনেকগুলো মেনে নেয়া হয়েছে। যেটা বাকি আছে সেটা সড়ক পরিবহন আইন। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আগামী কেবিনেট মিটিং এ আসবে সে আইনটি অ্যাপ্রুভ হওয়ার পর সংসদে যাবে এবং আশা করছি এ আইনটি পাস হবে।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, অপরাধীদের গ্রেফতার করেছে দ্রুততার সঙ্গে। ফিটনেসবিহীন গাড়ির বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। বাকিগুলো সড়ক পরিবহন আইনের মধ্য আছে, সংসদে পাস হলে ইমপ্লিমেন্ট করা যাবে। যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে তাদের বিচারও সময়ের ব্যাপার। বিষয়টি আমাদের কোমলমতিরা উপলব্ধি করবে।

তিনি বলেন, আমি আশা করি বাস্তবতা যেখানে অনেক দাবি মেনে নিয়েছে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও বলেছেন। শিক্ষার্থীদের কাছে আহ্বান জানাব আগামী দিনের নেতৃত্ব দেবে তাদের আহ্বান করব তারা তাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফিরে গিয়ে পড়াশোনায় মনোযোগ দেবে।

সব কিছু দ্রুততার সঙ্গে সম্পূর্ণ হবে এবং যৌক্তিক সমাধানে যাওয়া হচ্ছে বলেও জানান কাদের।

নৌমন্ত্রীর পদত্যাগের বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে কাদের বলেন, নৌমন্ত্রী তাদের কাছে দুঃখপ্রকাশ করেছেন বারবার এবং ক্ষমাও চেয়েছেন। সরি বলেছেন অ্যাপলোজাইজ করেছে। মন্ত্রী যখন ক্ষমা প্রার্থনা করছেন তাকে কি মাফ করা যায় না। সবাইকে সবিনয় অনুরোধ করব, অভিভাবকদের অনুরোধ করব সবার সহযোগিতা চাইছি, দাবিগুলো মেনে নিয়েছি পূরণ করার ব্যাপারে। আজকে রাস্তার যানবাহন পুড়িয়ে ফেলবে বা ভাচুর করবে এ ভয়ে বের হচ্ছে না বাস। যাত্রীদের কষ্ট হচ্ছে এগুলো বিবেচনা করবেন।

বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীদের জামায়াত-শিবির উসকে দিচ্ছে কিনা সাংবাদিকদের প্রশ্নে কাদের বলেন, যৌক্তিক দাবিতে যদি রাজনীতির কূটকৌশল জড়িয়ে পরে তাহলে আন্দোলন ভিন্নখাতে প্রবাহিত হওয়ার আশঙ্কা আছে। তবে বিষয়টা আমরা খতিয়ে দেখছি, এ রকম রাজনীতির অনুপ্রবেশ ঘটছে কী না, কেউ তাদের অতীতে আন্দোলন ব্যর্থতার কারণে কখনো কোটার ওপর কখনো শিক্ষার্থীদের ওপর সাওয়ার হচ্ছে কিনা, তা খতিয়ে দেখছি।

Sharing is caring!

Loading...
Open