র‍্যাবের পৃথক অভিযানে মাদকসহ ০৩ মাদক ব্যাবসায়ী আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক ::
মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জে র‍্যাবের অভিযানে বিপুল পরিমান মাদকসহ ৩ জনকে আটক করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার র‌্যাব-৯ -এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) মো. মনিরুজ্জামানের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা যায়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল থানা এলাকা থেকে দেশীয় তৈরী ১১০ লিটার চোলাই মদসহ ২ জন এবং হবিগঞ্জের মাধবপুর থানা এলাকা থেকে ফেন্সিডিলসহ ১ জন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব-৯।

র‍্যাব জানায়, গতকাল বুধবার (১ আগষ্ট) দুপুর দেড়টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৯, সিপিসি-২, (শ্রীমঙ্গল ক্যাম্প) এর একটি আভিযানিক দল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বিমান চন্দ্র কর্মকার এর নেতৃত্বে মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল থানা এলাকায় অবৈধ মাদকদ্রব্য উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করে।
আভিযানে মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল থানাধীন মৌলভীবাজার রোডস্থ ২ নং পুল এলাকা থেকে ১১০ লিটার দেশীয় তৈরী চোলাই মদ ও ১টি ব্যাটারি চালিত রিক্সাসহ ২ জন সক্রিয় মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়।
আটককৃত মাদক ব্যবসায়ী মো. শুক্কুর আলী (৪০) সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার টেংরা গ্রামের মৃত আজগর আলীর পুত্র। বর্তমানে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল থানার আরামবাগ মুচিপট্টি গ্রামে বসবাস করে আসছে। আটককৃত অপর মাদক ব্যবসায়ীর নাম মো. শফিক মিয়া (৪৩) মৌলভীবাজারের পূর্ব শ্রীমঙ্গল ল্যাংটার মাজার এলাকার মৃত মনু মিয়ার পুত্র।

এদিকে র‍্যাবের অপর অভিযানে হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর থানাধীন বেঙ্গাডোবা গ্রামের রাস্তার উপর থেকে মাদকদ্রব্যসহ ১ জন সক্রিয় মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়। আটককৃত মো. জালাল মিয়া (৪৫), হবিগঞ্জের মাধবপুর এলাকার বেঙ্গাডোবা ৯ নং নোয়াপাড়া ইউপি ৭ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মৃত কেলু মিয়ার পুত্র।
জালাল মিয়ার নিকট থেকে ৪৮ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করেছে র‌্যাব। র‍্যাব জানায়, জালাল এলাকায় একজন মাদক ব্যবসায়ী হিসেবে পরিচিত। দীর্ঘদিন যাবত হবিগঞ্জ জেলার বিভিন্ন থানা এলাকায় বিভিন্ন ধরনের মাদকদ্রব্য সরবরাহ করে আসছিল। তাকে গ্রেফতার করায় এলাকাবাসী স্বস্তি প্রকাশ করেছেন। উদ্ধারকৃত মাদক, ফেন্সিডিল ও গ্রেফতারকৃত আসামীদের শ্রীমঙ্গল ও মাধবপুর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করেছে র‍্যাব।

Sharing is caring!

Loading...
Open