হবিগঞ্জের কৃতি সন্তান ড. মনজুর কাদেরের পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন

সুরমা টাইমস ডেস্ক::
পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেছেন সিলেটের হবিগঞ্জ জেলার কৃতি সন্তান ড. মনজুর কাদের। সুইডিশ সরকারের অর্থায়নে সুইডেনের লুন্ড ইউনিভার্সিটিতে চার বছর মেয়াদি পিএইচডি সম্পন্ন করেছেন মনজুর। তিনি দীর্ঘদিন যাবৎ সুইডেনে চিকিৎসা শাস্ত্র নিয়ে গবেষণায় নিয়োজিত আছেন। তাঁর গবেষণার বিষয় ছিল পার্কিনসন্স রোগ যা একধরণের স্নায়ু-অধঃপতনজনিত রোগ। সাধারণত ৬০ বা তার চেয়েও বেশি বয়সী লোকদের মধ্যে রোগটি দেখা যায়।

ড. মনজুর কাদের জন্ম হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাটে, বর্তমানে হবিগঞ্জ সদরে মাহমুদাবাদ আবাসিক এলাকায় থাকেন. তাঁর বাবা অব: ইঞ্জিনিয়ার ইয়াকুব উল্লাহ ও মা আবিদা সুলতানা।

বাংলাদেশে ফিজিওথেরাপি চিকিৎশায় গ্রাডুয়েশন সম্পন্ন করে মনজুর উচ্চতর পড়ালেখার জন্য সুইডেনে পাড়ি জমান ২০০৫ সালে। সেখানে সুইডেনের উপসালা ইউনিভার্সিটি থেকে মেডিকেল সায়েন্স-এ মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন। তারপর পাবলিক হেলথ নিয়ে আরো একটি মাস্টারস ডিগ্রি করেন স্টোকহোল্মের কারোলিন্সকা মেডিকেল ইউনিভার্সিটিতে এবং সেখানেই গবেষণার কাজে জড়িয়ে পড়েন।

গবেষণা এখন তাঁর নেশা এবং পেশা! ইতিমধ্যে চিকিৎসা শাস্ত্রের বিভিন্ন বিষয় যেমন পুষ্টিহীনতা, স্থূলতা, নারী- ও শিশু স্বাস্থ্য, নারী অধিকার, স্পাইনাল কর্ড ইনজুরি ইত্যাদি বিষয়ে গবেষণা করেছেন, যেগুলো বিভিন্ন আন্তর্জাতিক জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে। গবেষণা কাজের স্বীকৃতি হিসেবে সুইডেনে পেয়েছেন অনেকগুলো পুরস্কার বা অ্যাওয়ার্ড।

ড. মনজুর কাদেরের সাফল্যের কথা সুইডেনের বিভিন্ন পত্রপত্রিকায়, এমকি একটি জাতীয় টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচারিত হয়। গত জুন মাসে তিনি ডক্টরেট উপাধি অর্জন করেন। তিনি হবিগঞ্জ ও মৌলভীবাজার জেলায় অবস্থিত ”Human Physiotherapy and rehabilitation center”-এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রাক্তন কন্সাল্ট্যান্ট।

বর্তমানে ড. মনজুর সুইডেনের দক্ষিণের মালমো শহরে স্ত্রী এবং সাত মাস বয়সী মেয়েকে নিয়ে স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন. তাঁর স্ত্রী পেশায় একজন ডাক্তার।গবেষণার পাশাপাশি এই ব্যক্তিত্ব গান করেন। সুইডেনের বিভিন্ন কালচারাল প্রোগ্রামে গান গেয়ে ইতোমধ্যে গায়ক প্রতিভারও স্বাক্ষর রেখেছেন মনজুর কাদের। ভ্রমণ বিলাসী এই মানুষটি দেশকে ভালবাসেন, সময় সুযোগ পেলে মা-মাটি-দেশের টানে ফিরে আসেন স্বজনদের কাছে।

Sharing is caring!

Loading...
Open