কয়লা চুরি বিএনপির আমল থেকে শুরু : হাছান মাহমুদ

নিউজ ডেস্ক::    বড়পুকুরিয়া কয়লা চুরি ২০০৫ সালে বিএনপির আমল থেকেই শুরু হয়েছে বলে দাবি করে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেছেন, সেই চোরের হোতাদের আজ শেখ হাসিনা চিহ্নিত করেছেন।

শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদ ‘জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের রাজনীতি’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ সব কথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, কয়লা চুরির পিছনে কারা আছে এবং কোথা থেকে শুরু হয়েছিল তার সবকিছুই বেরিয়ে আসবে। আমরা ইতোমধ্যেই তদন্ত কাজ শুরু করেছি। বিএনপির ক্ষমতা থাকা অবস্থায় বাংলাদেশে পাঁচবার দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।

তিনি বলেন, বিএনপির রাজপথে নামার সাহস হবে না তারা তাদের কেন্দ্রীয় কার্যালয়, প্রেস ক্লাব আর মাঝে মাঝে তাদের ঝটিকা মিছিলে দেখা যায়। তারা এখন হাওয়ার সঙ্গে মিশে থাকেন। বিএনপি আজ তাদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে কয়েকদিন পর পর বাংলাদেশ ব্যাংকের টাকা চুরি, কোটা আন্দোলন, স্বর্ণ চুরি, এখন আবার কয়লা চুরি মতো খড়কুটোর বিষয় নিয়ে টিকে থাকতে চেষ্টা করছে। কিন্তু দেশের জনগণ তাদের কখনই ক্ষমতায় দেখতে চায় না। ইতোমধ্যে কয়েকটি সিটি নির্বাচনে তা প্রমাণিত হয়েছে।

আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, যে নেতারা কর্মীদের রেখে দেশের বাইরে পালিয়ে থাকে তাদের উপর তৃণমূল নেতা-কর্মীদের আর কোন বিশ্বাস নেই। আর সেজন্যই আজকে দেশের কোথাও বিএনপি নেতাকর্মীদের মাঠে ময়দানে দেখা যায় না। কারণ মাঠে নামলে ক্ষতিগ্রস্ত হয় তৃণমূল নেতা-কর্মীরাই।

শেখ নওশের আলীর সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক হেদায়েতুল ইসলাম স্বপন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আক্তার হোসেন, স্বাধীনতা পরিষদের সভাপতি জিন্নাত আলী জিন্নাহ, আরব আমিরাত আওয়ামী লীগ সভাপতি আলহাজ আল মামুন, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতি জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানা, সাবেক ছাত্রনেতা শাহাদাত হোসেন টয়েল প্রমুখ।

Sharing is caring!

Loading...
Open