দলিল জালিয়াতি ও বাড়ি দখলের মামলায় কাউন্সিলর প্রার্থী মজলাই’র বিরুদ্ধে পরোয়ানা

সুরমা টাইমস ডেস্ক::
জোরপূর্বক যুক্তরাজ্য প্রবাসীর লোকজনকে বিতাড়িত করে বাসা বাড়ি দখল, দলিল জালিয়াতি ও প্রতারণার অভিযোগে সিলেটের চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দায়েরকৃত একটি মামলায় (নং- ১৭৩৬/১৭) সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ১৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী হাবিবুর রহমান মজলাই সহ ৬ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত। ১৫ জুলাই সিলেটের অতিরিক্ত চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ও আমলী আদালত-১ এই আদেশ জারী করেন। তবে রোববার উচ্চ আদালত থেকে হাবিবুর রহমান মজলাই জামিন নিয়েছেন বলে জানা গেছে। গ্রেফতারী পরোয়ানাভুক্ত অন্যান্য আসামীরা হলেন, খাদিমনগরের হাড়পারা গ্রামের মাওলানা রেজাউল করিম ক্বাসেমী, চালিবন্দরের রঞ্জিত কুমার পুরকায়স্থ বকুল, ওসমানীনগরের সাবিহা শিকদার, জগন্নাথপুরের আব্দুল মুছব্বির ও মো. মালাই খান।
জানা যায়, নগরীর কাস্টঘর এলাকার বাসিন্দা যুক্তরাজ্য প্রবাসী চান মিয়ার মালিকানাধীন একটি বাসা জাল দলিল তৈরী করে প্রতারণার মাধ্যমে দখল করে নেন উক্ত হাবিবুর রহমান মজলাই সহ অন্যান্য আসামীরা। এ ঘটনায় বাসার মালিক আফজল মাহমুদুর রহমান গংদের পক্ষে আমমোক্তার মুজাহির হোসেন জুনু সিলেটের চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার প্রেক্ষিতে ঘটনাটি তদন্ত করতে পিবিআই সিলেটকে আদেশ দেন বিজ্ঞ আদালত। আদালতের আদেশের প্রেক্ষিতে পিবিআই’র পক্ষ থেকে আদালতে একটি অনুসন্ধানী তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন পিবিআই সিলেটের এসআই লিটন চন্দ পাল। এতে তিনি উল্লেখ করেন, হাবিবুর রহমান মজলাই সহ উপরোক্ত আসামীরা বাদী পক্ষের উক্ত বাসাটি জোরপূর্বক নিজেদের দখলে নিয়ে যায়। তারা জালিয়াতির মাধ্যমে ভূয়া আমমোক্তারনামা ও মিথ্যা বানোয়াট দলিল তৈরী করে বাসাটি দখল করে ভাড়া আদায় করে যাচ্ছিলেন। এসব জালিয়াতির কারনে তাদের বিরুদ্ধে পেনাল কোডের ৪৬৭/৪৬৮/৪৭১/৪৭৪/৩৪ ধারায় অপরাধ প্রমাণিত হয়। তদন্তে আরো জানা যায়, উপরোক্ত আসামীরা সিলেটের রেজিস্টারী অফিসের বালাম বইয়ের পাতা ছিড়ে এবং আটা লাগিয়ে জাল জালিয়াতির মাধ্যমে ভূয়া দলিল তৈরী করে নেন।
এ ব্যাপারে কোতোয়ালী থানার ওয়ারেন্ট অফিসার এস.আই মনির হোসেন গ্রেফতারি পরোয়ানার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, হাবিবুর রহমান মজলাই সহ ৬ জনের বিরুদ্ধে আদালতের নির্দেশে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে ।

Sharing is caring!

Loading...
Open