সিটি নির্বাচন: সিলেটে ২৭টি ওয়ার্ডে ৯ জন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক) নির্বাচনে ২৭টি ওয়ার্ডে ৯ জন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দিয়েছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এসব ম্যাজিস্ট্রেট ভোট গ্রহণের আগের দিন (২৯ জুলাই) থেকে ভোট গ্রহণের পরবর্তী দুই দিন (১ আগস্ট পর্যন্ত) সিলেটে দায়িত্ব পালন করবেন।

এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে নির্বাচন কমিশন। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, নির্বাচনী অপরাধসমূহ বিচারার্থে আমলে নেয়া এবং বিচারের নিমিত্তে এসব ম্যাজিস্ট্রেটকে নিয়োগ প্রদান করা হয়েছে। ভোটের আগের দিন, ভোটের দিন এবং পরবর্তী দুই দিন সিলেট সিটির নির্বাচনী এলাকায় কোনো নির্বাচনী অপরাধ সংঘটিত হলে এসব ম্যাজিস্ট্রেট আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

সিলেট সিটি করপোরেশনে ২৭টি ওয়ার্ড রয়েছে। ইসি প্রতি তিনটি ওয়ার্ডে একজন করে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দিয়েছে।

সিসিকের ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডে সিলেটের অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. মোস্তাইন বিল্লাহ; ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডে ঢাকার অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এ কে এম এমদাদুল হক; ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. খুরশীদ আলম; ১০, ১১ ও ১২নং ওয়ার্ডে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট লস্কার সোহেল রানা; ১৩, ১৪ ও ১৫নং ওয়ার্ডে সিলেট সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাঁকন দে; ১৬, ১৭ ও ১৮নং ওয়ার্ডে সিলেট সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. মাহবুবুর রহমান ভূঁঞা; ১৯, ২০ ও ২১নং ওয়ার্ডে সিলেট মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুর রহমান ছিদ্দীকি; ২২, ২৩ ও ২৪নং ওয়ার্ডে সিলেট মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুর রহমান এবং ২৫, ২৬ ও ২৭নং ওয়ার্ডে সিলেট জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট বেগম ফারজানা শাকিলা সুমু চৌধুরী দায়িত্ব পালন করবেন।

জারিকৃত প্রজ্ঞাপনে নির্বাচন কমিশন উল্লেখ করে দিয়েছে, প্রত্যেক জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের সাথে একজন সশস্ত্র পুলিশ কর্মকর্তা (এএসআই পদমর্যাদার নিম্নে নয়) এবং দুজন করে কনস্টেবল থাকবে। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সিলেটের পুলিশ সুপারকে নির্দেশ দিয়েছে ইসি।

Sharing is caring!

Loading...
Open