একে ওপরের বিরুদ্ধে সকালে অভিযোগ, বিকেলে কোলাকুলি……..

সুরমা টাইমস ডেস্ক::    অভিযোগ পাল্টা অভিযোগের মধ্যেও সিলেটের রাজনীতিতে সম্প্রীতির ধারা ভুলে জাননি আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান ও বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী। রোববার সকালেই দুজন দুজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানালেও বিকেলে তাদের কোলাকুলি করতে দেখা যায়।

রোববার (১৫ জুলাই) দুপুরে ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশল, ইউএসএআইডি ও ইউকে এইড এর যৌথ উদ্যোগে ‘সংলাপে নাগরিক অগ্রাধিকার’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে অভিযোগ ভুলেই দুই মেয়র প্রার্থীই করেছেন কোলাকুলি।

অথচ আজ রোববার সকালেই আরিফ অভিযোগ করেন তার কর্মী সমর্থকদের নানা প্রকারের হুমকি ধামকি দিচ্ছেন ক্ষমতাসীন দলের মনোনীত প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান। যদিও কামরান সেই অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন হুমকি দেওয়ার রেওয়াজ তার নেই।

অন্যদিকে অনুষ্ঠানে দুই মেয়র প্রার্থীই আগামী দিনগুলোতে সম্মিলিত ভাবে নগরকে সাজানোর লক্ষ্যে কাজ করার প্রত্যয়ও ব্যাক্ত করেন।

রাজনৈতিক মতাদর্শ দুজনেরই আলাদা। নগরপিতা হবার লড়াইয়ে সমান তালেই চলছে দুইজনের প্রচারণা। বিগত দুই বারের মেয়র এবং সদ্য সাবেক মেয়র দুজনেরই পাল্টাপাল্টি অভিযোগের পরও তারা বজায় রেখেছেন সৌহার্দ্যপূর্ণ মনোভাব।

সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক) এর এই সাবেক দুই মেয়রই বিভিন্ন সময় নানা অনুষ্ঠানে বলেছেন সিলেটের সংস্কৃতি, ধর্ম ও রাজনৈতিক সৌহার্দের কথা। আর এসব কথা যে শুধু মুখেই নয় সেটাও নির্বাচনী প্রচারণাতেই বার বার প্রমাণ করছেন নৌকা আর ধানের শীষের প্রার্থীরা।

এর আগেও গতকাল শনিবার নৌকা-ধানের শীষের আন্তরিকতা সিলেটের জনসাধারণ দেখেছেন। আরিফের কাছে কামরানের হয়ে নৌকা মার্কায় ভোট চেয়েছিলেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি ও বিশিষ্ট কূটনীতিক ড. একে আবদুল মোমেন। সেটা হাসিমুখেই গ্রহণ করেছিলেন আরিফুল হক চৌধুরী।

সিলেটবাসীরও আশা জয় পরাজয় যাই হোক আগামীতে সমন্বিতভাবে কাজ করে সুন্দর ও উন্নত একটি নগর উপহার দেবেন এই দুই সাবেক মেয়র।

Sharing is caring!

Loading...
Open