সাংবাদিক ইদ্রিছ আলীর উপর সন্ত্রাসী হামলা ঃ সাহেব বাজারে প্রতিবাদ সমাবেশ

সুরমা টাইমস রিপোর্টঃ দৈনিক সবুজ সিলেটের ফটো সাংবাদিক ইদ্রিছ আলীর উপর হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত করেছে দুর্বিত্তরা। ইদ্রিছকে হামলা থেকে রক্ষা করতে গিয়ে আহত হয়েছেন ফরিদ আহমদ নামের এক চিকিৎসক। রবিবার বিকাল ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ইদ্রিছ আলী সিলেট সদর উপজেলার খাদিমনগর ইউনিয়নের সাহেববাজারের বাসিন্দা সাবেক ইউপি সদস্য ইলিয়াস আলীর ছেলে। বর্তমানে তাকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সাংবাদিক ইদ্রিসের পিতা ইলিয়াস আলী জানান, রবিবার বিকালে স্মার্টকার্ড আনতে ইউনিয়ন অফিসে যান ইদ্রিছ আলী। সেখানে মানুষের ভিড় দেখে বাড়িতে রওয়ানা দেন তিনি। ধোপাগুল ডাচ বাংলা এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের সামনে যাওয়ার পর ছয়জন যুবক ক্রিকেটের স্টাম্প ও ব্যাট নিয়ে ইদ্রিছের ওপর হামলা চালায়। তারা বেধড়ক মারপিট করে তাকে। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। এসময় ইদ্রিছকে মারপিট থেকে বাঁচাতে স্থানীয় বরণগ্রামের চান মিয়ার ছেলে ডা. ফরিদ আহমদ এগিয়ে আসেন। কিন্তু তাকেও মারধর করে হামলাকারীরা। ইলিয়াস আলী হামলাকারীদের পরিচয় নিশ্চিত করেছেন।

হামলাকারীরা হলো ধোপাগুলের আব্দুল জব্বারের ছেলে রাজন আহমদ রাজু (২৮) ও সুজন আহমদ (২৪), লাল মিয়ার ছেলে শিমুল (২৭), ইছরাখ আলীর ছেলে রিপন আহমদ এবং কছির মিয়া ও রুহেল নামের দুই যুবক।

ইদ্রিছ আলী বর্তমানে ওসমানী হাসপাতালের ৪র্থ তলার  ৫নং ওয়ার্ডে ভর্তি আছেন। ডা. ফরিদকেও ওসমানীতে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে ফটো সাংবাদিক ইদ্রিছ আলীর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনার প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে উঠেছে সাহেবের বাজার এলাকা। ঘটনার পর থেকে ইদ্রিস আলীর উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে এলাকাবাসী বিক্ষোভ মিছিল, প্রতিবাদ সভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করছে।

জানা গেছে, ইদ্রিস আলীর উপর হামলার পর থেকেই সাহেবের বাজার এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান  আশফাক আহমদ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। তিনি সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করে আইনের আওতায় তুলে দেওয়া হবে বলে আশ্বস্ত করেন। বর্তমানে পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত রয়েছে বলে জানা গেছে। সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ ইদ্রিস আলীর বর্তমান অবস্থার খোজখবর নেন।

এদিকে ইদ্রিস আলীর উপর সন্ত্রাসী হামলার তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছে সিলেট প্রেসক্লাব, বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন সিলেট বিভাগীয় কমিটি ও সাহেবের বাজার ব্যবসায়ী সমিতি।

Sharing is caring!

Loading...
Open