নগরীতে চালু হবে ‘ইমারজেন্সি অপারেশন সেন্টার’……..

নিজস্ব প্রতিবেদক ::   সিলেট অঞ্চল ভূমিকম্পপ্রবণ বা প্রাকৃতিক দুর্যোগপ্রবণ এলাকা। কিন্তু দুর্যোগ মোকাবেলায় সক্ষমতা এখানে নেই। এজন্য যে কোনো ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগে বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা থাকে সিলেটে।

এসব দিক বিবেচনা করে সিলেটে প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণের পরিকল্পনা করেছে সিটি করপোরেশন (সিসিক)। গ্রহণ করা হয়েছে আরবান রেজিলেন্স প্রজেক্ট। এ প্রজেক্টের আওতায় নগরীতে ইমারজেন্সি অপারেশন সেন্টার চালু হবে।

সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী এমন তথ্য জানিয়েছেন।

মেয়র জানান, ‘সিলেট ভূমিকম্প জোনে অবস্থিত। ভূমিকম্প বা প্রাকৃতিক বিপর্যয় রোধের ক্ষমতা আমাদের নেই, কিন্তু সতর্কতামূলক ব্যবস্থা আমরা গ্রহণ করতে পারি। এজন্য দায়িত্ব গ্রহণের প্রথম বছরেই বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে আমরা আরবান রেজিলেন্স প্রজেক্ট গ্রহণ করি। যোগাযোগ ও আলোচনার ফলে অর্থ বরাদ্দ এবং কাজের পরিকল্পনাও গৃহীত হয়। এই প্রজেক্টের কাজ চালুর সুবিধার্থে নগরভবনে তাদের জায়গা করে দিয়েছি। আরবান রেজিলেন্স প্রজেক্ট এর আওতায় নগরীতে ইমারজেন্সি অপারেশন সেন্টার চালু করা হবে। ইতোমধ্যে কার্যাদেশ দেওয়া হয়েছে এবং ঈদের পরেই নির্মাণ কাজ শুরু হবে। এছাড়াও ৫টি ইমার্জেন্সি বেজ স্টেশন স্থাপন করা হবে আপদকালীন সময়ে নেটওয়ার্ক সুরক্ষিত রাখার জন্য।’

Sharing is caring!

Loading...
Open