মাদক নির্মূলে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড সমর্থন করে না বিএনপি

সুরমা টাইমস ডেস্ক:: মাদক নির্মূল অভিযানের নামে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের সমালোচনা করেছে বিএনপি। বিষয়টিকে ‘অগ্রহণযোগ্য’ বলছে দলটি। শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘আমরাও চাই মাদক বন্ধ হোক। কিন্তু এই মাদকবিরোধী অভিযান চালাতে গিয়ে যে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড চলছে তা কোনোমতেই গ্রহণযোগ্য নয়।’

তিনি বলেন, ‘যাদের মারা হচ্ছে তারা যদি সত্যিকারের মাদক ব্যবসায়ী হয় তাহলে তাদের আইনের আওতায় আনা হোক। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করলে গডফাদারদের তথ্য অবশ্যই পাওয়া যাবে। আমরা অভিযানের বিরোধিতা করি না। আমরা পদ্ধতির বিরোধিতা করি।’

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, ছাত্রদলের সভাপতি রাজীব আহসানসহ কারাবন্দি সব নেতা-কর্মীর মুক্তির দাবিতে এ সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ জাতীয় দল।

খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, এই সরকার নার্ভাস হয়ে গেছে। এজন্য হঠাৎ করে মাদকবিরোধী অভিযান শুরু করল। তাও আবার নির্বাচনের বছরে।

‘এই মাদক এক মাস কিংবা ছয় মাস আগে আসে নাই। এই সরকার ক্ষমতায় আসার পর তাদের এমপি, মন্ত্রী নেতারা যারা মাদকের ব্যবসা করে তাদেরকে আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়ে মাদককে আজকে এই পর্যায়ে নিয়ে এসেছে। যা দেশকে ধ্বংস করে দিচ্ছে’, বলেন বিএনপির এই নেতা।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত (হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ) পর্যন্ত বলেছেন, এই পার্লামেন্টেই মাদকের গডফাদার আছে। এদেরকে আজকে ধরা হয় না, ধরা হয় ছোটখাটো যারা মাদক বহন করে। তাদেরকে খুন করা হচ্ছে। এর মধ্যে কোনো বাহাদুরি নাই। মূল উৎপাটন করা না গেলে এ দেশে মাদকবিরোধী অভিযান সফল হবে না।

বিভিন্ন সরকারি সংস্থা মাদকবিরোধী অভিযানের নামে বাণিজ্য করছে দাবি করে বিএনপির প্রাক্তন এই মন্ত্রী বলেন, এই অভিযানের নামে অনেক বাণিজ্য হচ্ছে, এসব বন্ধ করতে হবে। এই গণবিরোধী, স্বৈরাচার সরকারের হাত থেকে জনগণকে রক্ষা করতে হবে। এই স্বৈরাচারী সরকারের পতন ছাড়া এ দেশে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার সম্ভব হবে না।

আয়োজক সংগঠনের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সৈয়দ এহ্সানুল হুদার সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন, প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী প্রমুখ।

Sharing is caring!

Loading...
Open