“ঈদের পরই সিলেট সিটি নির্বাচনের তফসিল”

নিজস্ব প্রতিবেদক :: ২০১৩ সালের ১৫ই জুন অনুষ্ঠিত হয় সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সর্বশেষ নির্বাচন। নির্বাচিতরা ২০১৩ সালের ৯ই অক্টোবর প্রথম সভা করেন। সে হিসেবে এ সিটির মেয়াদ পূর্ণ হবে আগামী ৮ই অক্টোবর। মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার তিন মাস আগেই নির্বাচন সম্পন্ন করার লক্ষ্য নিয়ে ইতোমধ্যে পরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

গত ১১ই এপ্রিল এই সিটির নির্বাচনের দিন গণনাও শুরু হয়ে গেছে। নির্বাচন কমিশন ইতোমধ্যে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ভোটার তালিকা ও ভোট কেন্দ্রের প্রাথমিক তালিকা করার নির্দেশনা দিয়েছে।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, ঈদুল ফিতরের পরপরই সিলেট সিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হবে। জুলাইয়ের শেষ সপ্তাহে ভোট করতে সবরকম প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। একইসাথে ঘোষিত হবে রাজশাহী ও বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনেরও তফসিল।

নির্বাচন কমিশন আগামী ২৫ থেকে ৩০শে জুলাইয়ের মধ্যে এই তিন সিটিতে নির্বাচন সম্পন্ন করার পরিকল্পনা নিয়ে এগোচ্ছে। পরিকল্পনা অনুযায়ী ১৮ বা ১৯শে জুনের মধ্যে তফসিল ঘোষণা করা হতে পারে।

এরই মধ্যে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা বলেছেন, সংসদ নির্বাচনের আগে চলতি বছর জুলাইয়ের মধ্যে সব সিটি করপোরেশনে নির্বাচন করা হবে।

ইসির দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, আমরা ভোটের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি। নির্বাচন কমিশন জুলাইয়ে তিন সিটিতে ভোট করার পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছে।

সিলেট সিটিতে নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রধান দুই দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থীরা গত কয়েক মাস আগ থেকেই মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। দলীয় কর্মকাণ্ডের বাইরেও তারা ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন, গণসংযোগ করছেন। বিশেষ করে রমজানকে সামনে রেখে প্রার্থীরা প্রচার-প্রচারণা নিয়ে বেশ ব্যস্ত রয়েছেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open