সিআইডির অভিযোগ গ্রহন করেনি আদালত,পুন:তদন্ত করবে পিবিআই

দিরাই প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে ট্রিপল মার্ডার মামলার চার্জশীটের বিরুদ্ধে বাদী একরার হোসেনের নারাজি আবেদন গ্রহন করেছেন আদালত। বহুল আলোচিত এ মামলার মূল আসামীদের বাদ অব্যাহতি চেয়ে সিআইডির দেয়া চার্জশীট আমলে না নিয়ে পিবিআই কে পুন:তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালতের বিচারক ।

গত বছরের সতের জানুয়ারী সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলায় জলমহালের দখলকে কেন্দ্র করে আওয়ামীলীগ ও যুবলীগের দুই পক্ষের বন্দুক যুদ্ধে গুলিবিদ্ধ হয়ে তিন জেলে নিহত হয়। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলায় চৌদ্দ মাস পর ১৪ এপ্রিল সিআইডি পুলিশ আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে । অভিযোগপত্রের বিরুদ্ধে নারাজি দেন মামলার বাদী যুবলীগ নেতা একরার হোসেন। গতকাল বৃহস্পতিবার সুনামগঞ্জের জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে (দিরাই) নারাজি আবেদনের দ্বিতীয় দফা শুনানী শেষে আদালতের বিচারক মোহাম্মদ সাইফুর রহমান মজুমদার বাদীর নারাজি আবেদন গ্রহন করেন।

সিআইডির তদন্তে মামলার ৩৯ আসামির মধ্যে ১৪ জনের বিরুদ্ধে অপরাধ প্রমাণিত না হওয়ায় মামলা থেকে তাদের অব্যাহতি দেওয়ার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা জহিরূল হক কবির। এই ১৪ জনের মধ্যে দিরাই পৌরসভার মেয়র ও দিরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোশারফ মিয়া, দিরাই উপজেলার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ রায় এবং সদ্য বিএনপি থেকে আসা দিরাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগের নেতা হাফিজুর রহমান তালুকদার ,মেয়রের দুই পুত্র উজ্জল ও তাসবীরসহ মূল আসামীরা।

অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়, বাদী রাজনৈতিক কারণে মামলায় তাদের আসামি করেছেন। তারা ঘটনার সঙ্গে জড়িত নন। বাদী একরার হোসেন নারাজি আবেদনে অভিযোগপত্রে অব্যাহতির সুপারিশ করা সব আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আমলে নেওয়ার আবেদন করেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open