মুনতাসির আলীকে বিএনপি নেতাদের চ্যালেঞ্জ…….!

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি:: খেলাফত মজলিসের যুগ্ম-মহাসচিব মুহাম্মদ মুনতাসির আলী ‘নিখোঁজ’ বিএনপি নেতা ও সাবেক সংসদ সদস্য এম. ইলিয়াস আলী’র স্ত্রী তাহসিনা রুশদী লুনাকে জড়িয়ে মন্তব্য করায় ফুঁসে উঠেছেন বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

মতবিনিময় সভার সংবাদ বিভিন্ন অনলাইন পোর্টালে প্রকাশের পর সামাজিক যোগাযোগ ফেইসবুকে প্রতিবাদ ঝড় উঠে। মুনতাসির আলীর বক্তব্যের প্রতিবাদ জানান তারা।

প্রতিবাদে বিএনপি ও সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বলেন, তাহসিনা রুশদী লুনা শুধু ইলিয়াস আলীর স্ত্রী নয়। তিনি শহীদ জিয়ার আদর্শে ছাত্র রাজনীতি করে আজ বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা হয়েছেন। তিনি একজন উচ্চ শিক্ষিত রাজনিতিক পরিবারের মানুষ। বিএনপি একটি বিশাল রাজনৈতিক দল সেই দলের একজন জনপ্রিয় নেত্রী।

তাঁর বিরুদ্ধে সমালোচনা করে মিডিয়ার কল্যাণে যিনি আসতে চান সেই সব বেকুবদের জবাব দেয়া তাহসিনা রুশদী লুনা’র প্রয়োজন নেই। এমন চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে বলেন, জনপ্রিয়তা যাচাই করতে একজন মেম্বার হওয়ারও যোগ্যতা নেই মুনতাসির আলীর।

উল্লেখ্য, মুনতাসির আলী ১৫ মে বিশ্বনাথ উপজেলা শহরের নতুনবাজারস্থ একটি কমিউনিটি সেন্টারে সাংবাদিকের সাথে মতবিনিময় করেন। এসময় সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে মুহাম্মদ মুনতাসির আলী বলেন, রাজনীতিতে কোন নির্বাচনী আসন বা দলীয় পদ-পদবী কারোও জমিদারী নয়, যে স্বামীর পরিবর্তে সেস্থানে তার স্ত্রীকেই দিতে হবে। আর কেউ যদি তা মনে করে, তবে তা হবে রাজনৈতিক সন্ত্রাস। রাজনীতি বুঝে না এমন কাউকে এ আসনে মনোনয়ন দেওয়া হবে না।

কারণ আবেগ দিয়ে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় যাওয়া যায় না, ক্ষমতায় যেতে হলে জনতার রায় নিয়েই যেতে হবে। কারণ আসনের প্রকৃত মালিক হচ্ছেন জনগণ, কোন ব্যক্তি বা গোষ্ঠির নয়, এটা ভুলে গেলে চলবে না। তাই ২০ দলীয় জোটের সমন্বয়ে সিলেট-২ আসনটি ‘খেলাফত মজলিস’কে ছাড় দেবে বিএনপিসহ জোটের শরিকরা। এছাড়াও ২০ দলীয় জোট যাকে মনোনয়ন দেবে, তাকেই নির্বাচিত করার জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যেতে হবে।

Sharing is caring!

Loading...
Open