দক্ষিণ সুরমায় হোটেল ‘আল-তকদির’র মালিক-স্টাফ গ্রেফতার……..

নিজস্ব প্রতিবেদক::    বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দীর্ঘ ১১ দিন বন্দি রেখে তরুণীকে গণধর্ষণের অভিযোগে সিলেটের দক্ষিণ সুরমার হোটেল ‘আল-তকদির’ থেকে হোটেল মালিক নিয়াজ উদ্দিন ও স্টাফ জসিম উদ্দিনকে আটক করেছে থানা পুলিশ।

গতকাল বৃহস্পতিবার (০৩রা মে) দক্ষিণ সুরমা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করার পর অভিযান চালিয়ে তাদের দু’জনকে রাত ১০টায় আটক করে পুলিশ। তবে, মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে তাদের ছাড়িয়ে নেয়ার চেষ্টা করছে একটি মহল।

গত ২০শে এপ্রিল থেকে ৩০শ এপ্রিল পর্যন্ত দক্ষিণ সুরমার হোটেল আল তকদিরে রেখে পাশবিক নির্যাতনের এ ঘটনা ঘটে। এতে হোটেল আল তকদিরের মালিক ও স্টাফসহ ৪জনকে আসামী করা হয়েছে।

আসামীরা হচ্ছে- সুনামগঞ্জের দিরাইয়ের জসিম উদ্দিন, সিলেটের দক্ষিণ সুরমার চাঁনীঘাটস্থ হোটেল আল তকদিরের মালিক সৈয়দ নিয়াজ উদ্দিন, একই হোটেলের স্টাফ জাকির ও নূর মিয়া।

অভিযোগে প্রকাশ, সিলেটের গোয়াইনঘাট থানার ঠাকুর বাড়ির এক তরুণীর (১৯) সাথে মোবাইল ফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে জসিম উদ্দিনের। জসিম প্রেম প্রতারণা ও বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে গত ২০শে এপ্রিল ওই তরুণীকে হোটেল আল-তকদিরে উঠায়।

এখানে তাকে দীর্ঘ ১১ দিন বন্দী রেখে জসিম ও তার সহযোগীরা তাকে গণধর্ষন করে। এমনকি ভাড়াদিয়ে খদ্দের দিয়ে ওই তরুণীকে পাশ্ববিক নির্যাতন করায়। পাশপাশি ওই তরুণীর আইডি কার্ড, জন্ম সনদ, পাসপোর্ট ও মোবাইল কেড়ে নেয়। গত ৩০শে এপ্রিল কৌশলে হোটেল থেকে বের হয়ে ওই তরুণী তার পরিচিত বান্ধবী নাছিমার আশ্রয়ে গিয়ে বৃহস্পতিবার দক্ষিণ সুরমা থানায় গিয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খায়রুল ফজল ও এসি নুরুল আবসার দু’জন আটকের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open