দক্ষিণ সুরমার হোটেল আল-তকদিরে তরুণী গণ-ধর্ষিত : আটক ২

স্টাফ রিপোর্ট ঃ বিয়ের প্রলোভনে এক তরুণীকে ১১দিন গনধর্ষণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে বৃহস্পতিবার (৩রা মে) সিলেটের দক্ষিণ সুরমা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগের পেক্ষিতে দক্ষিণ সুরমার হোটেল আল-তকদির থেকে জসিম ও হোটেল মালিক নিয়াজ-সহ ২ নরপশুকে বৃহস্পতিবার (৩মে) রাত ১০ টায় আটক করেছে পুলিশ। তবে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে তাদের ছাড়িয়ে নেয়ার চেষ্টা করছে একটি মহল।

গত ২০ এপ্রিল থেকে ৩০এপ্রিল পর্যন্ত দক্ষিণ সুরমার হোটেল আলতকদিরে রেখে পাশবিক নির্যাতনের এ ঘঁন ঘটে। এত হোটেল আল তকদিরের মালিক ও স্টাফসহ ৪জনকে আসামী করা হয়েছে। আসামীরা হচ্ছে, সুনামগঞ্জের দিরাইয়ের জসিম উদ্দিন,সিলেটের দক্ষিণ সুরমার চাঁনীঘাটস্থ হোটেল আল তকদিরের মালিক সৈয়দ নিয়াজ উদ্দিন, একই হোটেলের স্টাফ জাকির ও নূর মিয়া।
অভিযোগে প্রকাশ, সিলেটের গোয়াইনঘাট থানার ঠাকুর বাড়ির এক তরুণীর (১৯) সাথে মোবাইল ফোনে প্রেম হয় জসিম উদ্দিনের। জসিম প্রেম প্রতারনা ও বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে গত ২০ এপ্রিল ওই তরুণীকে হোটেল আল-তকদিরে উঠায়। এখানে তাকে দীর্ঘ ১১ দিন বন্দী রেখে জসিম ও তার সহযোগীরা তাকে গনধর্ষন করে। এমনকি ভাড়াদিয়ে খদ্দেরকে দিয়ে ধর্ষন করায়। পাশপাশি ওই তরুনীর আইডকার্ড জন্ম সনদ, পাসপোর্ট ও মোবাইল কেড়ে নেয়। গত ৩০ এপ্রিল কৌশলে হোটেল থেকে বের হয়ে ওই তরুনী তার পরিচিত বান্ধবী নাছিমার আশ্রয়ে গিয়ে বৃহস্পতিবার দক্ষিণ সুরেমা থানায় গিয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।
ওসি খায়রুল ফজল ও এসি নুরুল আবসার দু’জন আটকের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open