বিয়ের পিঁড়িতে বসলো রায়নগর শিশু পরিবারের বিপাশা……..

সুরমা টাইমস ডেস্ক::    অবশেষে বিয়ের পিঁড়িতে বসলো বিপাশা। আজ শুক্রবার অনুষ্ঠিত তার বিয়েতে জনপ্রতিনিধি, প্রশাসনিক কর্মকর্তা, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি এবং সাংবাদিকসহ সর্বস্তরের মানুষের উপস্থিতি ছিল লক্ষ্যনীয়।
আজ শুক্রবার সমাজসেবা অধিদপ্তর পরিচালনাধীন রায়নগর শিশু পরিবারে আয়োজন করা বিপাশার বিয়ের। সকাল ১১টার দিকে বর আব্দুল লতিফ (২৭), ২০জন বরযাত্রী নিয়ে শিশু পরিবারে আসেন।
বিয়েতে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, জেলা প্রশাসক নুমেরী জামান, পুলিশ সুপার মনিরুজ্জামান, সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের স্ত্রী আসমা কামরান এবং জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মাহি উদ্দিন আহমদ সেলিমসহ নগরীর বিশিষ্টজনেরা উপস্থিত ছিলেন। বিয়েতে সবমিলিয়ে ৩শ’ অতিথির আপ্যায়নের ব্যবস্থা করা হয় বলে সমাজসেবা অধিদপ্তর সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন। বিয়েতে আমন্ত্রিত অতিথিরা নগদ অর্থসহ অন্যান্য উপহার সামগ্রী প্রদান করেন। সমাজসেবা অধিদপ্তর সিলেটের উপ-পরিচালক নিবাস রঞ্জন দাস এবং শিশু পরিবারের উপ-তত্বাবধায়ক জয়তি দত্ত বরযাত্রী ও আমন্ত্রিত অতিথিদের স্বাগত জানান।
সংশ্লিষ্টরা জানান, বিপাশা আক্তারকে ১০ বছর বয়সে সুনামগঞ্জের দিরাইয়ের একটি গ্রাম থেকে অজ্ঞাতনামা হিসাবে উদ্ধার করে পুলিশ।

উদ্ধারের সময় বিপাশা কেবল তার বাবার নাম জামাল বলতে পারতো। উদ্ধারের পর তার ঠাঁই হয়েছিল সমাজসেবা অধিদপ্তর পরিচালিত শিশু পরিবারে (সেফ হোমে)। এরপর ১০ বছর কেটে গেলেও তার বাবা-মা কিংবা স্বজনদের কোন খোঁজ মেলেনি। সূত্র জানায়, ২০১১ সালের ১১ই অক্টোবর বিপাশা শিশু পরিবারের সদস্য হন। প্রথমে তাকে রাখা হয় বাগবাড়ি সেফহোমে। ২০১৪ সাল থেকে তার ঠিকানা হয় রায়নগরের শিশু পরিবারে। শিশু পরিবারের রীতি অনুযায়ী আজ শুক্রবার তার বিয়ের তারিখ ধার্য্য করা হয়।

Sharing is caring!

Loading...
Open