গোয়াইনঘাটে জোড়া খুনের মামলায় আরো এক আসামী গ্রেফতার

গোয়াইনঘাট সংবাদদাতা::   সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার বহর গ্রামে জোড়া খুনের ঘটনায় ফারুক আহমদ শিপন (৪০) নামের এক আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তিনি উপজেলার বহর গ্রামের মৃত মন্তাজ আলীর পুত্র।

গতকাল রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে গোয়াইনগাট থানার ওসি মোঃ দেলওয়ার হোসেন’র নেতৃত্বে ও কোম্পানীগঞ্জ পুলিশের সহায়তায় কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার দলইরগাঁও এলাকা হতে তাকে আটক করা হয়। তিনি জোড়া খুনের মামলার তিন নম্বর আসামী।

ওসি দিলওয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ফারুকসহ এ ঘটনায় এ পর্যন্ত ১০ আসামী গ্রেফতার হয়েছে। জোড়া খুনের ঘটনায় মিত্রিমহল গ্রামের বাসিন্দা ও সালুটিকর বাজার মসজিদের মোতওয়াল্লী আব্দুস সোবহান বাদী হয়ে ৯৮ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন।

এছাড়া, দুটি অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় পৃথক দুটি মামলা হয়েছে। তবে, অস্ত্র দুটি লাইসেন্সকৃত বলে জানান ওসি।

এদিকে, আটক ফারুক আহমদের স্ত্রী নার্গিস আক্তার মুন্নি জানিয়েছে, ঘটনার দিন অর্থাৎ গত ২৪ মার্চ তার স্বামী ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। এর স্বপক্ষে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের একটি ছাড়পত্রও তিনি উপস্থাপন করেছেন।

প্রসঙ্গত, সালুটিকর বাজার মসজিদের দখলে থাকা স্থানে ড্রেন নির্মাণ নিয়ে গত ২৩শে মার্চ সন্ধ্যায় বহর ও মিত্রিমহল গ্রামবাসীর মধ্যে বাদানুবাদ হয়। এর জের ধরে পরদিন সকালে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষে মিত্রিমহল গ্রামের আব্দুল জলিলের পুত্র আলী আহমদ ওরফে মনাই (২৫) এবং একই গ্রামের আজিজুল ইসলামের পুত্র রুমেল আহমদ (৩০) গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান। এ ঘটনায় অন্তত অর্ধ শতাধিক লোক আহত হন। মিত্রিমহল গ্রামের আব্দুস সোবহান এবং বহর গ্রামের জামাল উদ্দিনের পক্ষের লোকজনের মধ্যে এ সংঘর্ষে ঘটনা ঘটে।

Sharing is caring!

Loading...
Open