“নগরীতে খুন হওয়া মা-ছেলে সমাহিত হলেন মানিকপীর গোরস্থানে”

নিজস্ব প্রতিবেদক ::       সিলেট নগরীর মিরাবাজারস্থ খারপাড়া এলাকায় রোকেয়া বেগম (৩৫) ও তার ছেলে রবিউল ইসলাম রোকন (১৮) এর মরদেহ সিলেট নগরীর মানিকপীর (র.) কবরস্থানে সমাহিত করা হয়েছে। এর আগে আজ সোমবার দুপুরে তাদের ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ দাফনের জন্য স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়। নিহত নারীর ভাই জাকির হোসেন মরদেহ গ্রহণ করেন।

পরে আসরের নামাজের পর জানাযা নামাজ শেষে নিহতদের মানিকপীর (র.) সিটি কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। জানাযার নামাজের আগে মানিকপীর কবরস্থানের গোসলখানায় মরদেহ দু’টিকে গোসল করানো হয়। এসব তথ্য জানিয়েছেন মাজারের একজন গোরখোদক।

এদিকে গতকাল রবিবার রাতে সিলেট কোতোয়ালি থানায় অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামী করে এ মামলা (নং০২(০৪)১৮) দায়ের করেন নিহত রোকেয়ার ভাই জাকির হোসেন। এতে অজ্ঞাতনামা বেশ কয়েকজনকে আসামী করা হয়েছে। পাশাপাশি এজাহারের বর্ণনায় দুই সপ্তাহ আগে মিতালী ১৫/ জে খারপাড়ার বাসাতে সংঘটিত একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে তার বোন ও ভাগ্নাকে খুন করা হতে পারে বলে তিনি ধারণা করছেন।

পুলিশ আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে বলে জানিয়েছেন মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মুখপাত্র মুহম্মদ আবদুল ওয়াহাব।

এদিকে নগরীর বারুতখানার বাসাতে নিহত রোকেয়ার স্বামী অসুস্থ হেলাল মিয়া সঙ্গে দেখা হয়। তিনি কথা বলতে না পারায় তার দ্বিতীয় স্ত্রী পান্না বেগম বলেন, তাদের বিয়ের ১১ বছর হয়েছে। ৯ বছরের একটি পুত্র সন্তান আছে তাদের। তার স্বামীর ওই পরিবার সম্পর্কে তিনি কিছুই জানেন না। স্বামী অসুস্থ হওয়ার পর থেকে ওই বাসায় ভাইদের উপর ভর করে স্বামী সংসার নিয়ে আছেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open