জাল ভোটের অভিযোগে সুনামগঞ্জে বিএনপি ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচন প্রত্যাখ্যান

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি::

সুনামগঞ্জ পৌরসভা উপ-নির্বাচনে ৩ প্রার্থীর মধ্যে দুজনই নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করেছেন। নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী নাদের বখতের বিরুদ্ধে জাল ভোটের অভিযোগ এনে ধানের শীষ এবং সতন্ত্র প্রার্থী এই নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করেন। আজ বৃহস্পতিবার (২৯শে মার্চ) বিকাল ৩টার দিকে সংবাদ সম্মেলন করে উভয় প্রার্থী জাল ভোটের অভিযোগ আনেন এবং নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করেন।

সুনামগঞ্জ পৌরসভা উপ-নির্বাচনের ৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সদ্য প্রয়াত মেয়র আয়ুব নখত জগলুলের ছোট ভাই নাদের বখত, ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী দেওয়ান সাজাউর রাজা চৌধুরী এবং মোবাইল প্রতীক নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী সুনামগঞ্জ পৌরসভার তিনবারের নির্বাচিত পৌর চেয়ারম্যান কবি মমিনুল মউজদীনের ছোট ভাই দেওয়ান গনিউল সালাদীন।

নির্বাচনে দু-একটি কেন্দ্র সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে এতে করে পুলিশসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। সুনামগঞ্জের উ্ত্তর আরফিন নগরের ভোট কেন্দ্রে সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ কনস্টেবল সাইফুল গুরুতর আহত হয়েছেন।

সুনামগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল্লাহ জানান, বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী নাদের বখত ও স্বতন্ত্র প্রার্থী দেওয়ান গনিউল সালাদিনের সমর্থকদের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। তিনি বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের আনার চেষ্টা করলে পুলিশের সঙ্গে সালাদিনের সমর্থকদের সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে পুলিশ সদস্যসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে।

নির্বাচন প্রত্যাখ্যান কারী উভয় (ধানের শীষ ও মোবাইল প্রতীকের) প্রার্থী সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে পুননির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ১লা ফেব্রুয়ারি পৌরসভার মেয়র আয়ুব বখত জগলুলের অকাল মৃত্যুতে পদটি শূণ্য ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। পরে নির্বাচন কমিশন পৌরসভার মেয়রের শূণ্য পদে আজ ২৯শে মার্চ উপ-নির্বাচনে ভোট গ্রহণ করছেন।

Sharing is caring!

Loading...
Open