বিশ্বনাথে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহতের ঘটনায় মামলা দায়ের

বিশ্বনাথ সংবাদদাতা::      সিলেটের বিশ্বনাথে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আজির উদ্দিন (৫০) নামের এক ব্যক্তি নিহতের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করেছেন নিহতের স্ত্রী সিতারা বেগম।

৯জনের নাম উল্লেখ ও আরো ৪/৫জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে গত মঙ্গলবার রাতে বিশ্বনাথ থানায় মামলাটি দায়ের করেন নিহতের স্ত্রী । মামলা নং-২১।

মামলায় অভিযুক্তরা হলেন- উপজেলার রঘুপুর গ্রামের মৃত আকবর আলীর পুত্র মজর আলী (৬০), তার পুত্র জয়নাল (২৫), স্ত্রী রেনু বিবি (৫০), মৃত ইন্তাজ আলীর পুত্র ইছাক আলী (৪৫), আনছার আলী (৪২), ইছুব আলীর স্ত্রী রোকেয়া বেগম (৪৫), ইছাক আলীর স্ত্রী আকলিমা (৩০), তার পুত্র খালেদ (১৯) ও আঙ্গুর মিয়ার পুত্র রুবেল (২০)।

মামলার এজাহারে বাদী উল্লেখ করেন, বিবাদীদের সাথে বসতবাড়ির রাস্তা ও মামলা মোকদ্দমা নিয়ে পূর্ব হইতে তার স্বামী আজির উদ্দিনের বিরোধ চলে আসছে। ইতিপূর্বে গত ১৭ই ফেব্রুয়ারী সকালে বিবাদী ইছাক আলী গংরা আজির উদ্দিনকে মারধর করে ও প্রাণে হত্যার হুমকি দেন। ওইদিন দিবাগত রাতে বিবাদীরা তার (আজির উদ্দিন) বসতঘরে আগুন লাগিয়ে দিলে সমস্তঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এঘটনায় আদালতে মামলা দায়ের করেন আজির উদ্দিন। পূর্ব শক্রতার জের ধরে গত ১৬ মার্চ বিকেল সাড়ে ৫টায় আজির উদ্দিন ক্ষেতের কাজ শেষে বাড়ির উঠানে আসামাত্র তাকে প্রাণে হত্যার উদ্দেশ্যে বিবাদীগণ পরিকল্পিতভাবে তার উপর আক্রমন চালায়। হামলায় গুরুতর আহত হয়ে মাটিতে পড়ে যান আজির উদ্দিন। এসময় পরিবারের অন্যান্যা সদস্যরা তাকে রক্ষা করতে এগিয়ে আসেল তাদের উপরও হামলা চালানো হয়। একপর্যায়ে গ্রামের লোকজন এগিয়ে আসলে আজির উদ্দিনের মৃত্যু নিশ্চিত হয়ে বিবাদীগন চলে যায়। এরপর দ্রুত আজির উদ্দিনকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন বলে মামলার এজাহারে নিহতের স্ত্রীর সিতারা বেগম (বাদী) উল্লেখ করেন।

মামলা দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মো. শামসুদ্দোহা পিপিএম বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। অভিযুক্তদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও তিনি জানান।

Sharing is caring!

Loading...
Open